মাদককাণ্ডে রিয়া চক্রবর্তীর ১০ বছর জেল হতে পারে

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর তদন্তের পরিপ্রেক্ষিতে উঠে এসেছে বলিউডের সঙ্গে মাদকযোগের কথা। মাদক মামালার তদন্তে এনসিবি রিয়া চক্রবর্তী ও তার ভাই শৌভিক চক্রবর্তীকে গ্রেফতার করেছে। এবার এই মামালায় উঠে এল নতুন তথ্য।  সূত্রের খবর, রিয়া চক্রবর্তীর বাড়ি থেকে দেড় কিলো গাঁজা উদ্ধার করা হয়েছে।

বাড়ি থেকে গাঁজা উদ্ধারের ঘটনায় বিপদ বাড়তে পারে অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তী ও তার ভাই শৌভিক চক্রবর্তী। এক্ষেত্রে রিয়া ও শৌভিকের কমপক্ষে ১০ বছরের জেল হতে পারে বলেও মনে করা হচ্ছে। এদিকে এর আগে এনসিবি’র তরফে জানানো হয়, আমরা সুশান্ত মামলার তদন্ত করছি না, মাদক মামলার তদন্ত করছি। এখনও পর্যন্ত এই মামলায় ১৯ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের সকলের কাছ থেকেই মাদক উদ্ধার হয়েছে।

এদিকে গতকাল বৃহস্পতিবার (১ অক্টোবর) সকালেই বি টাউনের সঙ্গে মাদক যোগ একটি বড় খবর প্রকাশ্যে আসে। একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, বলিউডের সঙ্গে মাদকযোগের যে জাল এনসিবি কাটতে শুরু করেছে, তাতেই উঠে এসেছে আরও একটি বড় নাম। কেন্দ্রীয় সংস্থার তরফে খবর মিলেছে, বলিউডের এই মাদক চক্রের মূল মাথা হলেন সাবেক এক সুপার মডেল তথা অভিনেতা। তার ইশারাতেই নাকি বলিউডে মাদক চক্র চলে।

দীপিকা, সারা, শ্রদ্ধাদের জোরদার জিজ্ঞাসাবাদের পর এবার বলিউডের আরও বেশ কয়েকজন প্রথম সারির অভিনেতা নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর নজরে রয়েছেন বলে খবর। তবে তারা কারা, সে বিষয়ে স্পষ্টভাবে কিছু জানা যায়নি। তবে বলিউডের ওই সাবেক সুপার মডেল তথা অভিনেতাই মাদক চক্রের মূল মাথা বলে খবর প্রকাশ হওয়ার পর ফের আলোচনা শুরু হয়েছে।

বৈশাখী নিউজএপি