নন্দীগ্রামের ৬০ কেন্দ্রের ৫০টিতেই জয়ের দাবি মমতার

ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনে নন্দীগ্রাম আসনে নিজেদের বিজয় নিশ্চিত বলে দাবি করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। শুক্রবার (২ এপ্রিল) দলের শীর্ষ নেতা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দাবি করেছেন, এবার ৬০টি কেন্দ্রের মধ্যে ৫০টিতে জয় পেতে যাচ্ছেন তিনি।

বিধানসভা নির্বাচনে নন্দীগ্রাম আসন থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন মমতা। তৃণমূল থেকে বিজেপিতে যোগ দেওয়া সাবেক সহযোগী শুভেন্দু অধিকারীই এ আসনে তার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী। বৃহস্পতিবার (১ এপ্রিল) নন্দীগ্রামে ভোট হয়। ভোটগ্রহণ শেষ হবার আধ ঘণ্টা আগে বৃহস্পতিবার (১ এপ্রিল) স্থানীয় সময় বিকাল সাড়ে পাঁচটায় নির্বাচন কমিশনের দেওয়া হিসাব মতে নন্দীগ্রামে ৮০% ভোট পড়েছে।

আগামী ১০ এপ্রিল চতুর্থ দফায় উত্তরবঙ্গের দুই জেলা কোচবিহার এবং আলিপুরদুয়ারে ১৪টি আসনের ভোটগ্রহণকে সামনে রেখে শুক্রবার (২ এপ্রিল) উত্তরবঙ্গে প্রচার শুরু করেছেন মমতা। এদিন কোচবিহারের দিনহাটায় প্রথম সভা করেন তিনি।

নন্দীগ্রামে নিশ্চিত জয় পেতে যাচ্ছেন দাবি করে মমতা বলেন, নন্দীগ্রামের মানুষকে অভিনন্দন। নন্দীগ্রামে ভোট দেখে বলতে পারি আপনারা জয়ের দিকে তাকিয়ে থাকুন। দু’দফায় ৬০টি কেন্দ্রে ভোট হয়েছে। এর মধ্যে ৫০টিতে আমিই জিতছি।

সকাল ৯টা ১৫ মিনিটের দিকে নন্দীগ্রাম ছাড়েন তৃণমূল নেত্রী। সেখান থেকে যান কলকাতা বিমানবন্দর। তারপর বাগডোগরা হয়ে পৌঁছান দিনহাটায়। সেখান থেকে নাটাবাড়িতে জনসভা করে যাবেন আলিপুরদুয়ারে। সেখানেও একটি জনসভা করে ফিরবেন শিলিগুড়ি।

যদিও ভোটের দিন নন্দীগ্রাম থেকে অমিতাভ ভট্টশালী বিবিসি বাংলাকে জানিয়েছেন, সেখানে দুই প্রার্থীর মধ্যে খুবই হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হয়েছে এবং সকাল থেকে পুরো নির্বাচনী এলাকা ঘুরে তিনি দেখেছেন ভোট দেবার জন্য ভোটকেন্দ্রগুলোতে লম্বা লাইন।

তিনি বলেছিলেন, গোটা এলাকার বিভিন্ন ভোটদান কেন্দ্রে প্রচুর ভোট পড়েছে এবং লাইনে নারী ভোটারদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মত।

উল্লেখ্য, এই আসনে জয় পরাজয় দুই প্রার্থীর রাজনৈতিক ভবিষ্যতের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা।

বৈশাখী নিউজজেপা