চারশ ছাড়াল শ্রীলঙ্কার লিড

দুর্দান্ত ফর্মে থাকা দিমুথ করুণারত্নেকে বিদায় করেছেন সাইফ হাসান। ফেরার আগে শ্রীলঙ্কান অধিনায়ক তুলে নিয়েছেন ক্যারিয়ারের ২৬তম অর্ধশতক। পরে তারই পথে ছুটতে থাকা ধনাঞ্জয়া ডি সিলভাকে তুলে নেন মিরাজ। আর তাইজুল তুলে নেন পাথুম নিসাঙ্কাকে। তবুও চারশ ছাড়িয়েছে স্বাগতিকদের লিড।

লাঞ্চ বিরতি পর্যন্ত ৬ উইকেট হারিয়ে ১৭২ রান তুলেছে শ্রীলঙ্কা। যাতে তামিম-মোমিনুলদের সামনে এরইমধ্যে লক্ষ্য দাঁড়িয়েছে ৪১৪ রান। ডিকওয়েলা ২৩ রানে এবং মেন্ডিস ২ রানে ক্রিজে আছেন। তাইজুল ৩টি, মিরাজ ২টি ও সাইফ একটি উইকেট লাভ করেন।

প্রথম ম্যাচে ২৪৪ রানের ইনিংস খেলেছিলেন করুণারত্নে। দ্বিতীয় ম্যাচের প্রথম ইনিংসে বাঁহাতি এই ওপেনারের ব্যাট থেকে আসে ১১৮ রান। রোববার চতুর্থ দিনের শুরু থেকে দ্রুত রান তুলছিলেন তিনি। যদিও শেষ পর্যন্ত থামলেন পার্ট টাইম বোলার সাইফের বলেই।

এদিন দলীয় ১১২ রানের মাথায় শর্ট লেগে থাকা বদলি ফিল্ডার ইয়াসির আলীর হাতে ক্যাচ দিয়ে মাঠ ছাড়েন করুণা। তার আগে একটি ছক্কা ও সাতটি চারে ৭৮ বলে ৬৬ রান করেন তিনি। এ নিয়ে দুই ম্যাচের এই সিরিজেই একটি করে দ্বিশতক, শতক ও অর্ধশতকে সবচেয়ে বেশি ৪২৮ রান করেন এই বাঁহাতি ওপেনার।

আর মিরাজের শিকার হয়ে স্লিপে শান্তর হাতে ধরা পড়ার আগে মারমুখি ধনঞ্জয়া ডি সিলভা করেন ৫২ বলে ৪১ রান। তবে ষষ্ঠ উইকেটে মারমুখি খেলে দ্রুত রান তুলছেন পাথুম নিসাঙ্কা ও নিরোশান ডিকওয়েলা মিলে। যাতে ৪শ ছাড়িয়েছে শ্রীলঙ্কার লিড।

এর আগে সকালে বাংলাদেশের বিপক্ষে ২৫৯ রানের লিড নিয়ে মাঠে নামে শ্রীলঙ্কা। দিনের শুরুতে অ্যাঞ্জেলা ম্যাথুজকে বিদায় করেন তাইজুল ইসলাম। (১২) ফিরে গেছেন সাজঘরে। ৩৫ বলে ১২ রান করে ইয়াসিরের হাতে ধরা পড়েন অভিজ্ঞ এই ব্যাটসম্যান।

আগের দিন মোমিনুলদের বিপক্ষে ২৪২ রানে এগিয়ে থেকে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নামে স্বাগতিকরা। তৃতীয় দিন শেষে ২ উইকেটে ১৭ রান তু লঙ্কানরা। দলীয় ১৪ রানে মিরাজের বলে আউট হন লাহিরু থিরিমানে। আর এক রান যোগ হতেই তাইজুলের বলে আউট হন ওসাদা ফার্নান্দো।

বৈশাখী নিউজ/ বিসি