সমলয় পদ্ধতিতে ধান চাষে দ্বিগুন ফলন

তিমির বনিক, মৌলভীবাজার প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল উপজেলায় সমলয় পদ্ধতিতে ধান চাষ করে তিন গুন বেশী উৎপাদন হয়েছে। সোমবার (৩ এপ্রিল) উপজেলার আশিদ্রোন ইউনিয়নে সমলয় পদ্ধতিতে চাষ করা ধান কাটা শুরু হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন অনুমিত হিসাব সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা উপাধ্যক্ষ মো.আব্দুস শহীদ এমপি।
উপস্থিত ছিলেন জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক কাজী লুৎফল বারী, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো.নেছার উদ্দিন, ওসি(অপারেশন) নয়ন কারকুন, জেলা প্রশিক্ষন কর্মকর্তা (ডিএই) সামছুদ্দিন আহমদ, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা নিলুফার ইয়াসমিন মোনালিসা সুইটি,সদর ইউপি চেয়ারম্যান ভানু লাল রায়, আশিদ্রোন ইউপি চেয়ারম্যান রনেন্দ্র প্রসাদ বর্ধন জহর।
গত ১৭ জানুয়ারি ৪৮ জন কৃষক একত্র হয়ে আশিদ্রোন ইউপি ৫০ একর জমিতে সমলয়ে ধান রোপন করে ছিলেন। ধান বীজ রোপন করা হয় কম্বাইন্ড হারর্ভেস্টার যন্ত্রের সহায্য। ফলন খুব ভাল হয়েছিল। পাকা ধান কাটা-মাড়াই ও বস্তাবন্দি করা অত্যাধুনিক যন্ত্র দ্বারা।
এতে কৃষকের শ্রম ও খরচ কম লেগছে। প্রতি বিঘায় ২৭ মন ধান উৎপাদন হচ্ছে যা আগে ৫ থেকে ৬ মন হতো।
আব্দুস শহিদ এমপি বলেন, দেশের ক্রমবর্ধমান জনসংখ্যার খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সরকার কৃষকদের আধুনিক যন্ত্রপাতি ও সব ধরনের সুযোগ সুবিধা দিয়ে যাবে। ৫০ থেকে ৭০ শতাংশ ভর্তুকিতে কৃষকদের মাঝে আধুনিক কৃষি যন্ত্রপাতি সরবরাহ করা হচ্ছে।
এসব আধুনিক যন্ত্রপাতি ব্যবহারের ফলে একদিকে খরচ কমেছে অন্যদিকে ধানের ফলন বাড়ছে। তাছাড়া কৃষক যেন তার উৎপাদিত ফসলের ন্যায্য মূল্য পায় তার জন্য সরকার কৃষক হতে সরাসরি ধান ক্রয় করছে।যাতে করে সুবিধা ভোগী মজুদ ব্যবসায়ী এই সুযোগের অপব্যবহার না করতে পারে।