ভারতের পর এবার মিশরকে রাফাল জেট দিচ্ছে ফ্রান্স

ভারতের পর এবার মিশরের কাছে রাফাল জেট এবং যুদ্ধাস্ত্র বিক্রি করবে ফ্রান্স, যা নিয়ে ঘরে বাইরে সমালোচনার মুখে দেশটির সরকার।

জানা গেছে, এপ্রিল মাসেই মিশরের সঙ্গে চুক্তি চূড়ান্ত হয়েছিল ফ্রান্সের। আজ মঙ্গলবার মিশরের সরকারি কর্মকর্তারা ফ্রান্সে গিয়ে তাতে চূড়ান্ত সই করার কথা।

মিশরের কাছে ৩০টি রাফাল ফাইটার জেট বিক্রি করবে ফ্রান্স। পাশাপাশি বেশ কিছু মিলিটারি ইলেকট্রনিক্স বিক্রি করা হবে। সব মিলিয়ে প্রায় তিন দশমিক ৭৫ বিলিয়ন ইউরোর চুক্তি। প্রাথমিকভাবে বিষয়টি নিয়ে কোনও দেশ কথা না বললেও সোমবার মিশরের সরকারি প্রতিনিধি চুক্তির সত্যতা মেনে নিয়ে একটি টুইট করেন।

এর আগেও ফ্রান্সের সঙ্গে মিশরের অস্ত্র চুক্তি বহুদূর এগিয়েও শেষ পর্যন্ত ভেস্তে গেছে। মিশর অস্ত্রের দাম দিতে পারবে কি না, তা নিয়ে ফ্রান্স প্রশ্ন তুলেছে। তবে এবার সেই সম্ভাবনা নেই বলেই মনে করা হচ্ছে। অস্ত্রের জন্য মিশর যে ঋণ নিচ্ছে, তার ৮০ শতাংশই ফ্রান্সের বিভিন্ন সংস্থা থেকে বলে জানা গেছে।

ফ্রান্সের এই পদক্ষেপে দেশের ভিতরেই বিতর্ক শুরু হয়েছে। মিশরের প্রেসিডেন্ট আবদেল ফাতাহ আল সিসির সরকার নিয়ে আন্তর্জাতিক মহলে বহু বিতর্ক আছে। যেভাবে তার সরকার দেশের মানবাধিকার লঙ্ঘন করছে, যেভাবে প্রায় ৬০ হাজার মানবাধিকার কর্মীকে জেলে ঢুকিয়ে রাখা হয়েছে, তার বিরুদ্ধে সরব গোটা বিশ্ব। সেই পরিস্থিতিতে ফ্রান্স কীভাবে ওই সরকারের সঙ্গে অস্ত্র চুক্তি করছে, তা নিয়েই বিতর্ক।

ফ্রান্স অবশ্য এর আগেও আল সিসিকে সম্মান দিয়েছে। দেশের সর্বোচ্চ সম্মান জ্ঞাপন করা হয়েছে তাকে, যা নিয়ে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টকে সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছিল। এবারের চুক্তি নিয়ে ফ্রান্সের সরকার এখনও পর্যন্ত কোনও মন্তব্য করেনি। সূত্র: ডয়েচে ভেলে

বৈশাখী নিউজএপি