প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ স্ট্যাটাস, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে ফেসবুকে কুরুচিপূর্ণ স্ট্যাটাস দেয়ার অভিযোগে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলায় মো. মাঈন উদ্দিন সরকার (২২) নামে এক তরুণের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়েছে। শনিবার (৭ জুন) রাতে কসবা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট রাশেদুল কাউসার ভূইয়া জীবন বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন।

অভিযুক্ত মাঈন উদ্দিন সরকার কসবা উপজেলার কায়েমপুর ইউনিয়নের কায়েমপুর গ্রামের ইয়াকুব আলী সরকারের ছেলে। কসবা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. লোকমান হোসেন মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মামলার এজাহারে বলা হয়, ‘হক কথা তিতা লাগে’ নামীয় একটি ফেসবুক আইডি থেকে গত ৩০ মে বিকেল ৪টা ৪৮ মিনিটে ও ৩১ মে রাত ১১টা ৪৩ মিনিটে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ স্ট্যাটাস পোস্ট করা হয়। ওই স্ট্যাটাসে প্রধানমন্ত্রী ও বাংলাদেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয়েছে। পাশাপাশি স্ট্যটাসটি মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বিরুদ্ধাচরণ ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বিরুদ্ধে মিথ্যা প্রোপাগান্ডা ও মিথ্যা প্রচারণার শামিল। অভিযুক্ত মাঈন উদ্দিন সরকার ‘হক কথা তিতা লাগে’ ফেসবুক আইডিটি পরিচালনা করেন বলে এজাহারে উল্লেখ করা হয়।

মামলার বাদী ও কসবা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাড. রাশেদুল কাউসার ভূইয়া জীবন বলেন, আওয়ামী লীগের একজন আদর্শিক কর্মী হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে দেয়া কুরুচিপূর্ণ পোস্টে আমি সংক্ষুব্ধ হয়েছি। দলীয় সভানেত্রীর সম্মানহানি আমি কোনোভাবেই মেনে নিতে পারি না। সেজন্যই অভিযুক্তের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছি। আমি এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চাই।

এ ব্যাপারে কসবা থানার ওসি মো. লোকমান হোসেন জানান, ইতোমধ্যে মামলার তদন্ত কাজ শুরু হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বৈশাখী নিউজজেপা