হত্যার হুমকি পেয়েছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের রোগ বিশেষজ্ঞ অ্যান্থনি ফাউসি

সময়: 3:20 pm - January 27, 2021 | | পঠিত হয়েছে: 3 বার

যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ অ্যান্থনি ফাউসি ট্রাম্পের সময় করোনা মহামারী নিয়ন্ত্রণে হোয়াইট হাউসের টাস্কফোর্সের অন্যতম সদস্য ছিলেন।যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প করোনাভাইরাস নিয়ে উদ্ভট সব আচরণ ও কর্মকাণ্ড নিয়ে মুখ খুলছেন অ্যান্থনি ফাউসি। খবর দি ইন্ডিপেনডেন্টের।ডোনাল্ড ট্রাম্পের সময় নানামুখী চাপে থাকা ফাউসি স্মরণ করে বলেন, ট্রাম্পের বক্তৃতা শুনে তার চোখ কপালে ওঠার দশা হয়েছিল। এ সময় তিনি হত্যার হুমকিও পেয়েছিলেন বলে গণমাধ্যমকে জানান।

ট্রাম্পের বক্তৃতা শুনে লোকজন এমন কিছু করে ফেলে কি না, তা নিয়ে উদ্বিগ্ন ছিলেন তিনি। জীবাণুনাশক ফুসফুসে প্রবেশ করিয়ে বা তা দিয়ে কোনোভাবে ফুসফুস পরিষ্কার করা হলে করোনা থেকে মুক্তি পাওয়া যেতে পারে বলে এক সংবাদ সম্মেলনে মন্তব্য করেছিলেন ট্রাম্প।

ট্রাম্প বলেছিলেন– জীবাণুনাশক দিয়ে ফুসফুস পরিষ্কার করলে এ ভাইরাস থেকে মুক্তি পাওয়া যেতে পারে। তার পরও ক্ষমতায় থাকাবস্থায় সাবেক এই মার্কিন প্রেসিডেন্টের বলা কথাবার্তা নিয়ে আলোচনা থেমে নেই।

ট্রাম্পের সময় করোনা মহামারী নিয়ন্ত্রণে হোয়াইট হাউসের টাস্কফোর্সের অন্যতম সদস্য অ্যান্থনি ফাউসি এখন মুখ খুলছেন।

ট্রাম্পের এসব শুধু ফাউসি নন, প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের মধ্যেও উদ্বেগ বেড়ে গিয়েছিল। কিন্তু প্রেসিডেন্টের সরাসরি বিরুদ্ধাচরণ করে তারা বক্তব্যও দিতে পারছিলেন না।

তবে নানা শলাপরামর্শ করে সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোলের (সিডিসি) পক্ষ থেকে দ্রুতই এ নিয়ে একটা সতর্ক বাণী প্রকাশ করা হয় এবং জনগণকে এমন কিছু না করার জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়।

পরে ট্রাম্প তার এক বক্তৃতায় বলেছিলেন, তিনি হাস্যরস করতে গিয়ে জীবাণুনাশক দিয়ে করোনা দূর করার কথাটি বলেছিলেন। মেরিল্যান্ডের রিপাবলিকান গভর্নর লেরি হোগান তখন এক সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, তার রাজ্যের বিপুলসংখ্যক লোক টেলিফোন করে জানতে চাইছেন জীবাণুনাশক দিয়ে ফুসফুস পরিষ্কার করার বিষয়টি। এ সময় যুক্তরাষ্ট্রের শপিংমলগুলোয় হঠাৎ করেই জীবাণুনাশক ডিটারজেন্টের বিক্রি বেড়ে যায়।

করোনাভাইরাসে যুক্তরাষ্ট্রে এরই মধ্যে চার লাখের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

করোনাভাইরাস নিয়ে পরামর্শে পেতে যুক্তরাষ্ট্রের জনগণের কাছে ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিলেন ফাউসি। কিন্তু তাকে দমানোর চেষ্টা করা হচ্ছিল ট্রাম্প প্রশাসনের পক্ষ থেকে।

একপর্যায়ে ফাউসিকে চাকরিচ্যুত করার কথাও বলেন ট্রাম্প। সংবাদ সম্মেলনে ট্রাম্প বলেছিলেন, ফাউসি তার অধীনে কাজ করেন, অথচ তিনি কেন তার চেয়ে জনপ্রিয়?

এদিকে হোয়াইট হাউসের দায়িত্ব নেওয়া নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন শপথ নেওয়ার আগেই বলেছেন, অ্যান্থনি ফাউসিকে তার প্রশাসনে কাজ করার আমন্ত্রণ জানাবেন তিনি। দেশে করোনা মহামারী নিয়ন্ত্রণে জোরালো ভূমিকা রেখে নাম কুড়ানো ফাউসি এখন বাইডেন প্রশাসনে ভূমিকা রেখে চলেছেন।

 

facebook sharing button
messenger sharing button
twitter sharing button
pinterest sharing button
linkedin sharing button
print sharing button
Share Now

এই বিভাগের আরও খবর