মিয়ানমারে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট বন্ধের নির্দেশ

মিয়ানমারের বিতর্কিত সামরিক শাসকরা দেশটিতে ওয়ারলেস ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সেবা বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে। বৃহস্পতিবার (১ এপ্রিল) কয়েকটি টেলিকম সূত্র জানিয়েছে, পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত জান্তা ব্রডব্যান্ড পরিসেবা বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে।

ব্রিটিশ সংবাদ সংস্থা রয়টার্স যারা ব্রডব্যান্ড সেবা প্রদান করে তাদেরকে দেওয়া এই নির্দেশনা সম্বলিত একটি ইমেইল হাতে পেয়েছে। ওই আদেশে ব্রডব্যান্ড বন্ধের কারণ জানানো হয়নি।

ইমেইল বার্তায় আরও বলা ছিল, মিয়ানমারে যে মোবাইল ইন্টারনেট বন্ধ চলছে সেটা চলমান থাকবে এবং আইন অনুসারে নির্দেশনা মেনে চলতে হবে।

এর আগে সেনাবাহিনীর অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে মিয়ানমারজুড়ে প্রতিবাদের মুখে ইন্টারনেট বন্ধ করে দেশটির সামরিক জান্তা। গত ৬ ফেব্রুয়ারি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটার ও ইনস্টাগ্রাম বন্ধ ঘোষণার পর মিয়ানমারজুড়ে ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়ার ঘোষণা দেওয়া হয়ে। এর আগে ফেসবুক বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

গত ১ ফেব্রুয়ারি মিয়ানমারের গণতন্ত্রপন্থি নেত্রী অং সান সু চিসহ তার রাজনৈতিক দল ন্যাশনাল লীগ ফর ডেমোক্রেসির নেতৃত্বাধীন স্থানীয় ২০ এর অধিক নেতাকে গ্রেপ্তার করে সেনাবাহিনী। এরপর গত বছরের নভেম্বরে অনুষ্ঠিত সাধারণ নির্বাচনে ব্যাপক ভোট কারচুপির অভিযোগ তুলে তারা জরুরি অবস্থা জারি করে।

যদিও মিয়ানমারের সাধারণ জনতা সামরিক শাসন প্রত্যাখ্যান করে এর বিরুদ্ধে রাজপথে বিক্ষোভ শুরু করে।

মিয়ানমারে এখন পর্যন্ত সেনাবাহিনী এবং পুলিশের গুলিতে ৫৩৬ জনের অধিক বিক্ষোভকারী নিহত হয়েছে। জাতিসংঘসহ পশ্চিমা দেশগুলো মিয়ানমারের জান্তা সরকারের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে। তবুও জান্তা সরকারের অবস্থান পরিবর্তনের কোনো লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না।

বৈশাখী নিউজজেপা