বিদেশী পর্যটকদের জন্য উন্মুক্ত হচ্ছে স্পেন

দীর্ঘ এক বছরের বেশি বিধিনিষেধের পর ‘ইউরোপীয় সবুজ ডিজিটাল সার্টিফিকেট’ বহনকারী আন্তর্জাতিক পর্যটকদের জন্য উন্মুক্ত হচ্ছে স্পেন। আগামী জুন মাস থেকে এটি কার্যকর হবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন দেশটির জাতীয় পর্যটন বিষয়ক সম্পাদক ফের্নান্দো ভালদেস।

সম্প্রতি যুক্তরাজ্যে অনুষ্ঠিত হওয়া ওয়ার্ল্ড ট্র্যাভেল অ্যান্ড ট্যুরিজম কাউন্সিলের (ডব্লিউটিটিসি) বার্ষিক সম্মেলনে তিনি এই ঘোষণা দেন। এদিকে দেশটির শিল্প, বাণিজ্য ও পর্যটন মন্ত্রী রেইয়েস মারোতো এই ঘোষণাকে খুব ভালো সংবাদ বলে উল্লেখ করেছেন।

তিনি বলেন, গ্রীষ্মের ছুটির মাসগুলোতে আন্তর্জাতিক পর্যটকদের স্পেনে আগমনের অর্থ হচ্ছে মহামারিতে ‘টিকা স্বরূপ’।

দেশটির জাতীয় পর্যটন বিষয়ক সম্পাদক ফেরনান্দো ভালদেস আশ্বাস দিয়ে বলেছেন, ‘স্পেনে করোনার অবস্থা গত গ্রীষ্মের মতো নেই। এখন পরিস্থিতি সম্পূর্ণ আলাদা। আর এই কারণে এখন পর্যটকদের নিশ্চয়তা দেওয়া যাবে। তাদের সঠিক তথ্য দেওয়া ও দেশে ফিরে যাওয়ার আশ্বাসও দেওয়া যাবে বলে আমরা মনে করি।’

তিনি আরও বলেন, পর্যটকদের সুরক্ষা দেওয়া এবং সবুজ ডিজিটাল সার্টিফিকেটের মান নিশ্চিত করতে হবে। আমরা যদি সেটি না করি এবং নিজ দেশে ফিরে পর্যটকরা যদি কোনো অনিশ্চিত বিধি নিষেধের মুখোমুখি হোন, তবে সেটা পর্যটন শিল্পের জন্য সহায়ক হবে না।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের উদ্যোগে ‘ইউরোপীয় সবুজ ডিজিটাল সার্টিফিকেট’ একটি বিশেষায়িত ডকুমেন্ট। যা বহনকারী ব্যক্তির কোভিড-১৯ এর টিকা সংক্রান্ত তথ্য যেমন- টিকার নাম, গ্রহণের তারিখ ও কয় ডোজ সম্পন্ন করেছেন তা উল্লেখ থাকবে। এ ছাড়া ব্যবহৃত টিকার ড্রাগ ব্যাচ নাম্বারও এতে উল্লেখ থাকবে। আরও থাকবে পিসিআর টেস্ট করানোর তথ্যসহ সর্বশেষ কোভিড উত্তরণের দিন ও তারিখ।

বৈশাখী নিউজজেপা