শ্রীলংকায়ই হবে এশিয়া কাপ

শ্রীলংকার মাটিতেই আসন্ন এশিয়া কাপ অনুষ্ঠিত হবে বলে নিশ্চিত করেছন দেশটির ক্রিকেট বোর্ডের সচিব মোহন ডি সিলভা।

এশিয়া কাপের ১৫তম আসরের আয়োজক শ্রীলংকা ক্রিকেট বোর্ড (এসএলসি)। তবে ১৯৪৮ সালে স্বাধীনতার পর সবচেয়ে কঠিন সংকটের মুখে পড়েছে শ্রীলংকা। ভয়াবহ মুদ্রাস্ফীতি, জ্বালানি সংকট, নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের ঘাটতি ও আকাশ-ছোঁয়া দাম, দীর্ঘ সময় ধরে লোডশেডিং সমস্যায় বিধ্বস্ত লংকানরা। অর্থাৎ অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক সংকটে বিধ্বস্ত দ্বীপ রাষ্ট্রটি।

দেশে চলমান সমস্যার কারনে এ বছরের এশিয়া কাপ আয়োজনের সুযোগ হারাতে পারে এসএলসি।
বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম ও সূত্র বলছে, দেশের খারাপ পরিস্থিতির কারনে এশিয়া কাপ আয়োজনে সুযোগ হাতছাড়া হবে এসএলসির। এজন্য এসিসি থেকে একটি আলটিমেটামও পেয়েছে এসএলসি। ২৭ জুলাইয়ের মধ্যে জানিয়ে দিতে হবে আদৌ, এশিয়া কাপ আয়োজন করতে পারবে কি-না এসএলসি।

তবে যত সমস্যাই থাকুক না কেন, আগামী এশিয়া কাপ শ্রীলংকার মাটিতেই হবে বলে নিশ্চিত করেছেন এসএলসির সচিব মোহন।

শ্রীলংকার সংবাদমাধ্যমকে মোহন বলেন, ‘আগামী ২৭ আগস্ট থেকে ১১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এশিয়া কাপ টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট শ্রীলংকায় অনুষ্ঠিত হবে এবং এটিই চুড়ান্ত। এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের সহায়তা (এসিসি) নিয়ে এশিয়া কাপ আয়োজনের ব্যাপার খুবই ইতিবাচক এসএলসি কর্মকর্তারা। কেউ এটি নিয়ে ভিন্ন কিছু ভাবছে না এবং এটি অন্যত্র সড়ে যাওয়ার কোন সুযোগ নেই।’

করোনাভাইরাসের কারনে ২০২০ সালের এশিয়া কাপ পিছিয়ে দেয়া হয় এক বছর। করোনা পরিস্থিতির উন্নতি না হওয়াতে ২০২১ সালে আবারও এক বছর পিছিয়ে যায় এশিয়া কাপ।

তবে ২০২২ সালে করোনা পরিস্থিতি অনেকটাই স্বাভাবিক হওয়ায় এ বছর এশিয়া কাপ আয়োজন নিয়ে আশাবাদি এসিসি।

বৈশাখী নিউজ/ ইডি