ইউক্রেন যুদ্ধের মাঝেই ইউরোপ সফরে যাচ্ছেন মোদি

বহু বছর পর আবারও যুদ্ধের কবলে ইউরোপ। ইউক্রেন যুদ্ধের মাঝেই এবার ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ইউরোপ সফরে যাচ্ছেন। জার্মানি, ডেনমার্ক ও ফ্রান্স যাবেন তিনি। মোদির সফরে ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধের ইস্যুটি গুরুত্ব পাবে বলে মনে করা হচ্ছে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি এ খবর জানায়।

মোদির ইউরোপ সফর শুরু হচ্ছে ২ মে। তিনি প্রথমে বার্লিন যাবেন। ওলাফ শলৎস জার্মানির চ্যান্সেলারের দায়িত্ব নেওয়ার পর এবারই প্রথম মোদি জার্মানি যাবেন। দুই নেতাই ভারত-জার্মানি ইন্টার-গভর্নমেন্টাল কনলাসটেশনে (আজিসি) অংশ নেবেন। ভারত ও জার্মানির অনেক মন্ত্রীও আইজিসিতে থাকবেন। মোদি ও শলৎস একটি বাণিজ্যিক সম্মেলনেও ভাষণ দেবেন।

জার্মানি থেকে মোদি যাবেন ডেনমার্ক। সেখানে তিনি ভারত নরডিক শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দেবেন। এই শীর্ষ সম্মেলনে ডেনমার্ক ছাড়াও আইসল্যান্ড, ফিনল্যান্ড, নরওয়ে, সুইডেনের প্রধানমন্ত্রীরা থাকবেন।

সেখান থেকে দেশে ফেরার পথে মোদি অল্প সময়ের জন্য ফ্রান্সে যাবেন। প্যারিসে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট মাখোঁর সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী মোদির বৈঠক হবে। মাখোঁ সবে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জিতেছেন। তারপরই মাখোঁর সঙ্গে মোদির আলোচনা বাড়তি গুরুত্ব পাচ্ছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় একটি বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছে, ভারত ও ফ্রান্সের মধ্যে কূটনৈতিক সম্পর্কের ৭৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে দুই দেশ দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ককে নতুন উচ্চতায় নিয়ে যেতে চায়।

তবে শলৎস, মাখোঁ ও নরডিক শীর্ষ সম্মেলনে রাশিয়া-ইউক্রেন নিয়ে আলোচনা হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

সম্প্রতি ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রধান উরসুলা ফন ডেয়ার লাইয়েন ভারতে এসে বুঝিয়ে দিয়ে গিয়েছেন, ইইউ চায় ভারত রাশিয়া-বিরোধী অবস্থান নিক। যুক্তরাষ্ট্রও তা-ই চাইছে। তবে ভারত এখনো পর্যন্ত রাশিয়ার বিরুদ্ধে কোনো কথা বলেনি।

বৈশাখী নিউজ/ ইডি