সরফরাজদের মুরগি ‘কেড়ে নিলেন’ কোচ মিসবাহ!

প্রধান কোচ ও নির্বাচকের দায়িত্ব নিয়ে খেলোয়াড়দের খাদ্যাভ্যাসের উপর নজর দিলেন পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক মিসবাহ উল হক। কায়েদে আজমের ম্যাচে এবং জাতীয় একাডেমিতে থাকা খেলোয়াড়দের জন্য মুরগিজাতীয় যেকোনো খাবার পুরোপুরি নিষিদ্ধ ঘোষণা কোচ মিসবাহ।

এছাড়াও দলের অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদসহ ছয় ক্রিকেটারকে ক্যাম্পের বদলে নিজেদের ফিটনেস নিয়ে কাজ করতে বলেছেন কোচ মিসবাহ।
লিগের ম্যাচে ও লাহোরে জাতীয় ক্যাম্পের ক্রিকেটারদের খাদ্যতালিকায় কম তেলযুক্ত খাবার অন্তর্ভুক্ত করেছেন মিসবাহ। সেই সঙ্গে খেলোয়াড়দের ডায়েটের জন্য আলাদা মেন্যু নির্ধারণ করে দিয়েছেন তিনি।

খেলোয়াড়দের জন্য মুরগির বদলে মসুর ডাল, চাল, বারবিকিউ, পাস্তাজাতীয় খাবার খেতে বলেছেন নতুন কোচ। একইসঙ্গে খেলোয়ারদের জন্য প্রচুর পরিমাণে ফল সরবরাহ করতে ক্রিকেট বোর্ডকে আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আসন্ন মৌসুম শুরুর আগে চলমান ঘরোয়া ক্রিকেটে বিশেষ নজর দিয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। সিডনি থেকে লাহোর পৌঁছেই মাঠের প্রান্তে দাঁড়িয়ে বোলারদের পরামর্শ দিতে ব্যস্ত থাকতে দেখা গেছে নতুন বোলিং কোচ ওয়াকার ইউনিসকে।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজের জন্য আগামী ১৮ সেপ্টেম্বর থেকে ট্রেনিং ক্যাম্প শুরু করবে পাকিস্তান। ইতোমধ্যে ২০ সদস্যের প্রাথমিক দল ঘোষণা করেছে পিসিবি।