এশিয়ার প্রায় আড়াই কোটি লোককে দরিদ্র করবে করোনা : বিশ্বব্যাংক

মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে বিশ্ব অর্থনীতিতে এরই মধ্যে প্রভাব পড়তে শুরু করেছে। এর প্রভাব পড়বে এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের দেশগুলোর ওপর। বিশ্ব ব্যাংক বলছে, করোনার কারণে অর্থনৈতিক মন্দা থেকে নিষ্কৃতি পাবে না এই অঞ্চলের প্রায় ২৪ মিলিয়ন (দুই কোটি ৪০ লাখ) মানুষ। তারা দরিদ্রতার শিকার হবে।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি মঙ্গলবার বিশ্ব ব্যাংকের সর্বশেষ প্রতিবেদনের উদ্ধৃতি দিয়ে এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে।

বিশ্ব ব্যাংকের রিপোর্টে বলা হয়েছে, মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে সব দেশের অর্থনীতি তাৎপর্যপূর্ণভাবে আক্রান্ত হবে। এতে করে যেসব পরিবারের জীবিকা শিল্প-কারখানার ওপর নির্ভরশীল, তারা চরম ঝুঁকিতে রয়েছে। এটা তাদের জন্য অশনিসঙ্কেত।

বিশ্ব ব্যাংক নির্দিষ্ট করে দিয়েছে বলেছে, থাইল্যান্ডের পর্যটনখাত এবং ভিয়েতনাম, কম্বোডিয়াসহ প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের উৎপাদনমুখী প্রতিষ্ঠানগুলোতে মহামারি করোনাভাইরাসের প্রভাব পড়বে।

বিশ্বের শীর্ষ এই আর্থিক প্রতিষ্ঠানের সংখ্যানুযায়ী, তাদের দৈনিক আয় সাড়ে পাঁচ মার্কিন ডলারের নিচে তারাই দরিদ্র।

করোনার করুণ দৃশ্যপট তুলে ধরে বিশ্ব ব্যাংকের আশঙ্কা, বিশ্বের প্রায় ৩৫ মিলিয়ন (সাড়ে তিন কোটি) মানুষ দরিদ্রতায় পতিত হবে। করোনাভাইরাসের উৎপত্তিস্থল চীনে এ সংখ্যা গিয়ে দাঁড়াবে ২৫ মিলিয়নে।

এই অবস্থায় এই অঞ্চলের দেশগুলোকে স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান ও চিকিৎসাসমাগ্রী তৈরি কারখানা বর্ধিত করে তাতে বিনিয়োগের পরামর্শ দিয়েছে বিশ্ব ব্যাংক।

প্রসঙ্গত, প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা ক্রমেই বেড়েই চলেছে। এ পর্যন্ত গোটা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৭ লাখ ৮৫ হাজার ৭১২ জন। মারা গেছেন ৩৭ হাজার ৮১৪ জন। আর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন এক লাখ ৬৫ হাজার ৬০৬ জন।

বৈশাখী নিউজবিসি