দেশে ৫৪ চিকিৎসক করোনাভাইরাসে আক্রান্ত

করোনাভাইরাসে বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত ৫৪ জন চিকিৎসক আক্রান্ত হওয়ার কথা জানিয়েছে দেশের চিকিৎসকদের একটি সংগঠন। সেই সঙ্গে চিকিৎসা সেবার সঙ্গে জড়িত প্রায় একশ মানুষ কোভিড-১৯ এ সংক্রমিত হয়েছেন।

বাংলাদেশ ডক্টরস ফাউন্ডেশন (বিডিএফ) এর চিফ এডমিনিস্ট্রেটর নিরুপম দাস মঙ্গলবার (১৪ এপ্রিল) এই তথ্য জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে পাওয়া তথ্য থেকে আক্রান্ত চিকিৎসাকর্মীদের এই সংখ্যাটি তারা পেয়েছেন।

কোভিড-১৯ আক্রান্ত চিকিৎসকদের মধ্যে এখন দুই জন নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) রয়েছেন বলেও জানান তিনি।

এদিকে করোনা আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসায় নিয়োজিত ডাক্তার ও নার্সদের থাকার জন্য ঢাকায় ১৯টি অভিজাত ও নিরাপদ হোটেলের নাম ঘোষণা করেছে সরকার। হাসপাতালে দায়িত্ব পালন শেষে বাড়ি না ফিরে ওই হোটেলগুলোতে কোয়ারেন্টিনে থাকবেন তারা। মঙ্গলবার (১৪ এপ্রিল) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হাসপাতাল ও ক্লিনিক শাখা থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

এসব হোটেলের মধ্যে রয়েছে- ঢাকা রিজিন্সি, প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও, লা মিরিডিয়ান, রাজমণি ঈসা খা ও হোটেল ৭১।

এসব হোটেলে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল, শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার ইনস্টিটিউট ও হাসপাতাল, কুয়েত মৈত্রী হাসপাতাল, মাতৃ ও শিশু স্বাস্থ্য প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান, মহানগর জেনারেল হাসপাতাল এবং কমলাপুরের জেনারেল হাসপাতালের ডাক্তার ও নার্সরা থাকবেন।

করোনায় চিকিৎসায় নিয়োজিত ডাক্তার ও নার্সদের সুরক্ষা ও সুযোগ-সুবিধা নিয়ে আলোচনা-সমালোচনার মধ্যেই এমন ঘোষণা আসলো।

অধিদপ্তরের পরিচালক (স্বাস্থ্য) ড. মো. আমিনুল হাসান স্বাক্ষরিত চিঠিতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট বিভাগের সচিবকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার অনুরোধ করা হয়েছে।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা জানান, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর চিকিৎসা দিতে গিয়ে ইতোমধ্যে সংক্রমিত হয়েছেন বেশ কয়েকজন চিকিৎসক। তাই এই ঝুঁকি থেকে চিকিৎসক, নার্সসহ অন্যান্য স্বাস্থ্যকর্মীদের পরিবারকে সুরক্ষিত রাখতে এই পরিকল্পনা করেছে সরকার।

চিঠিতে ১৯টি হোটেলের নাম উল্লেখ করে করোনাভাইরাস আক্রান্তদের সেবায় নিয়োজিত চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্য সেবায় নিয়োজিত অন্যান্যদের জন্য ৫৮০টি কক্ষ বরাদ্দ চাওয়া হয়েছে।

এর আগে করোনাভাইরাসের চিকিৎসায় নিয়োজিত ডাক্তার ও নার্সদের জন্য বীমাসহ আর্থিক প্রণোদনা ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সরকারি হিসাব অনুযায়ী, মঙ্গলবার দেশে করোনাভাইরাসজনিত কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও সাতজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে এ রোগে আক্রান্ত হয়ে ৪৬ জনের মৃত্যু হলো। এ ছাড়া নতুন করে আরও ২০৯ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। এ নিয়ে মোট এক হাজার ১২ জন করোনায় আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে।

বৈশাখী নিউজইডি