প্রথম মার্কিন কৃষ্ণাঙ্গ প্রতিরক্ষামন্ত্রী হলেন জেনারেল অস্টিন

বাইডেন প্রশাসনের প্রতিরক্ষামন্ত্রী হলেন অবসরপ্রাপ্ত জেনারেল লয়েড অস্টিন। বৃহস্পতিবার কংগ্রেসে ভোটাভুটিতে বিষয়টি অনুমোদিত হয়। ফলে এ পদের জন্য আর কোনো বাধা রইল না অস্টিনের। বাইডেন নিজেই এ পদের জন্য তাকে মনোনীত করেছিলেন।

আলজাজিরা জানায়, কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ হাউস অব রি রিপ্রেজেন্টেটিভসে ৩২৬-৭৮ ভোটে মার্কিন সামরিক বাহিনীর দায়িত্ব নিতে অনুমোদন দেওয়া হয় অস্টিনকে। এরপর অল্প সময়ের মধ্যে উচ্চকক্ষ সিনেটে ৬৯-২৭ ভোটে বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে যায়।

আমেরিকার আইন অনুসারে, বেসামরিক বা অবসরপ্রাপ্ত সামরিক ব্যক্তিত্ব থেকে কাউকে প্রতিরক্ষামন্ত্রী বানানো হয়। সামরিক কর্মকর্তাদের ক্ষেত্রে অন্তত সাত বছরের অবসর জীবন পার করতে হয়, এরপর তিনি এ পদের জন্য উপযুক্ত হন।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালে সামরিক বাহিনী থেকে অবসর নেন অস্টিন। ফলে তার অবসর জীবন পুরোপুরি পাঁচ বছরও হয়নি। এরপরেও বাইডেন তাকেই তার প্রতিরক্ষামন্ত্রী হিসেবে মনোনীত করেন। তবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের জন্য কংগ্রেসের ভোটাভুটির অপেক্ষা ছিল, এখন সেই বাধাও দূর হলো। এর ফলে প্রথমবারের মতো একজন কৃষ্ণাঙ্গকে প্রতিরক্ষামন্ত্রী হিসেবে পেল যুক্তরাষ্ট্র।

প্রতিরক্ষামন্ত্রী হিসেবে কংগ্রেসের অনুমোদন পাওয়ায় অস্টিনের প্রশংসা করেছেন হাউস আর্মড সার্ভিস কমিটির চেয়ারম্যান অ্যাডাম স্মিথ। তার মতে, এ পদের জন্য অনন্যভাবে যোগ্য অস্টিন। জটিল হুমকি পরিস্থিতিতে খুব দ্রুত পেন্টাগনের দায়িত্ব নেয়া উচিত তার, মনে করেন স্মিথ।

ট্রাম্প প্রশাসনের ভারপ্রাপ্ত প্রতিরক্ষামন্ত্রী ক্রিস মিলারের স্থলাভিষিক্ত হবেন অস্টিন। ট্রাম্পের সঙ্গে বিরোধে ২০১৮ সালে প্রতিরক্ষামন্ত্রী জিম ম্যাটিস পদত্যাগ করেন। এরপর যুক্তরাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ পদটিতে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তারাই দেখভাল করছিলেন।

বৈশাখী নিউজজেপা