মুম্বাইয়ের একটি কোভিড হাসপাতালে আগুনে দগ্ধ হয়ে নিহত ১০

ভারতের মুম্বাইয়ে একটি করোনা হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ডে কমপক্ষে ১০ জন নিহত হয়েছেন। ভারতীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে হাসপাতালটি করোনা রোগীদের সেবা দিত।

গতকাল মুম্বাইয়ের একটি হাসপাতালে রাত ১১ টার দিকে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। হাসপাতালে নাম সানরাইজ। হাসপাতালটি করোনা রোগীদের চিকিৎসা সেবা দিত। জানা যায় হাসপাতালটি শপিং মলের চতুর্থ তলায় অবস্থিত।

শুক্রবার ওই হাসপাতাল থেকে ৭০ জনেরও বেশি রোগীকে উদ্ধার করে অন্য হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। তারা সবাই করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালটিতে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

এ ঘটনায় নিহতদের পরিবারের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে। নিহতদের পরিবারের প্রত্যেককে পাঁচ লাখ রুপি করে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

শুক্রবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘দমকলকর্মীরা সাহসিকতার সঙ্গে উদ্ধারকাজ চালিয়েছে। তবে যারা ভেন্টিলেটরে ছিলেন, তাদের উদ্ধার করা যায়নি। আমি তাদের পরিবারের কাছে ক্ষমা চাইছি।’

মুখ্যমন্ত্রী জানান, কোভিড সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় অস্থায়ীভাবে হাসপাতালটি তৈরি করা হয়েছিল। হাসপাতালটির অনুমতিপত্রের মেয়াদ আগামী ৩১ মার্চ শেষ হওয়ার কথা।

তিনি আরও বলেন, ‘প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে, আগুনের সূত্রপাত হয়েছিল শপিংমলের একটি দোকানে, হাসপাতালে নয়। আমি আশ্বাস দিচ্ছি যে, এ ঘটনায় দোষীদের শাস্তি দেওয়া হবে।’

মুম্বাইয়ে হাসপাতালে আগুনের ঘটনায় টচুইট করে শোক বার্তা জানিয়েছেন ঢাকা সফররত ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ মোদি।

বৈশাখী নিউজজেপা