চুক্তির টিকা দ্রুত পেতে সিরামকে চিঠি

চুক্তি অনুযায়ী কেনা করোনাভাইরাস প্রতিরোধী টিকা দ্রুত সময়ের মধ্যে পেতে ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউটের কাছে চিঠি পাঠিয়েছে সরকার।

মার্চের শেষ সপ্তাহে এই চিঠি দেয়া হয়েছে বলে জানিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম জানান, চিঠির জবাব এখনও আসেনি।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের আশা, চলতি মাসেই আসবে কেনা টিকার দ্বিতীয় চালান।

আজ মঙ্গলবার (০৬ এপ্রিল) সকালে তিনি বলেন, ‘প্রথম ডোজের পাশাপাশি দ্বিতীয় ডোজের টিকাদান কার্যক্রম আগামী বৃহস্পতিবার শুরু হবে। দ্বিতীয় ডোজের টিকা প্রয়োগের জন্য ৪২ লাখ টিকা মজুত রয়েছে। এই টিকা দিয়েই লকডাউন ও রমজানে টিকা প্রয়োগ অব্যাহত থাকবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘টিকা কার্যক্রম অব্যাহত রাখতে এই মাসেই টিকার দ্বিতীয় চালান নিশ্চিতে উৎপাদন সংস্থা ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউটে চিঠি দেয়া হয়েছে। ওই টিকা দ্রুত আসবে বলে আশা করছি। চলতি মাসে পাওয়া যাবে।’

তবে বিশ্বব্যাপী করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় ভারত নিজস্ব চাহিদার কথা বিবেচনা করে সিরাম ইনস্টিটিউট উৎপাদিত অক্সফোর্ডের টিকার রপ্তানি গত ২৪ মার্চ স্থগিত করে।

ভারত সরকারের এই সিদ্ধান্তের ফলে আগামী এপ্রিলের শেষ পর্যন্ত টিকা রপ্তানি বিলম্বিত হতে পারে।
কোভ্যাক্সের আওতায় ১৮০টি দেশও সিরাম উৎপাদিত টিকা পাবে। কিন্তু রপ্তানি স্থগিত হওয়ায় এসব দেশও টিকা পাচ্ছে না।

বৈশাখী নিউজজেপা