এখন থেকেই খাদ্য নিরাপত্তায় কাজ শুরু করতে হবে : খাদ্যমন্ত্রী

খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেছেন, করোনাভাইরাসের মহামারী পরবর্তী খাদ্যের যোগান নিশ্চিত করতে এখন থেকেই কাজ শুরু করতে হবে। তিনি বলেন, বর্তমান সময়ে আমরা যেমন করোনাভাইরাসের সঙ্গে যুদ্ধ করছি, তেমনি করোনাভাইরাসের মহামারী পরবর্তী খাদ্যের যোগান নিশ্চিত করতে এখন থেকে আমাদের যুদ্ধ শুরু করতে হবে।

মন্ত্রী আরো বলেন, চালের মান নিয়ে কোন ধরণের আপোষ করা হবে না এবং কোনভাবেই পুরান চাল নেওয়া হবে না। এবারের বোরো ধানের চালই দিতে হবে।

সাধন চন্দ্র মজুমদার আজ ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হয়ে সারাদেশে বোরো চাল সংগ্রহ কার্যক্রমের উদ্ভোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

খাদ্য সচিব মোছাম্মৎ নাজমানারা খানুমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় অনলাইনে যুক্ত ছিলেন জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম, টাঙ্গাইলের সংসদ সদস্য মো. মনোয়ার হোসেন, দেশের প্রতিটি বিভাগ ও জেলার প্রশাসনের কর্মকর্তারা, খাদ্য মন্ত্রণালয় ও খাদ্য অধিদপ্তরের কর্মকর্তা ও মিল মালিক প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

খাদ্য সরবরাহ নিশ্চিত করতে পরস্পর পরস্পরের সঙ্গে মিলেমিশে, ভাল আচারণ, সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে নিত্য নতুন উদ্যোগ গ্রহণের মাধ্যমে চলমান বোরো চাল সংগ্রহ কার্যক্রম শতভাগ সফল করতে সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহবান জানিয়ে খাদ্যমন্ত্রী আরো বলেন, সরকারী নির্দেশনা অনুযায়ী স্বাস্থ্যবিধি মেনে, মাস্ক পরিধান ও সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখেই এই কার্যক্রমকে সফল করতে হবে।

চলতি মৌসুমে মিলারদের কাছ থেকে ৪০ টাকা কেজি দরে ১০ লাখ মেট্রিক টন সিদ্ধ চাল এবং ৩৯ টাকা কেজি দরে ১ লাখ ৫০ হাজার মেট্রিক টন আতপ চাল সংগ্রহ করা হচ্ছে।

বৈশাখী নিউজ/ এপি