নারী সাংবাদিককে সুন্দরী,মোহনীয় বললেন রুশ প্রেসিডেন্ট

৬৯ বছর বয়সেও নিজের রমণীমোহন ইমেজ ধরে রেখেছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। তবে এবার এক নারী সাংবাদিককে ‘সুন্দরী’ আর ‘মোহনীয়’ বলে মন্তব্য করে বেশ বিপাকেই পড়েছেন তিনি। তার বিরুদ্ধে ওই নারী সাংবাদিকের প্রতি সেক্সিস্ট মন্তব্য করার অভিযোগ উঠেছে বলে মার্কিন গণমাধ্যম সিএনএন এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত বুধবার রাশিয়ান এনার্জি সপ্তাহ উপলক্ষে মার্কিন টেলিভিশন চ্যানেল সিএনবিসির নারী সাংবাদিক হ্যাডলি গ্যাম্বলকে সাক্ষাৎকার দিচ্ছিলেন পুতিন।  এ সময় ইউরোপের গ্যাস সরবরাহ নিয়ে কথা বলার সময় গ্যাম্বলকে ‘সুন্দরী’ আর ‘মোহনীয়’ বলেন পুতিন।

সাক্ষাৎকারে পুতিনকে গ্যাম্বল প্রশ্ন করেন, দাম বাড়ানোর জন্যই রাশিয়া ইউরোপে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করে দিয়েছে কী না?

জবাবে পুতিন দর্শকদের উদ্দেশে বলেন, সুন্দরী নারী, মোহনীয়, আমি তাকে একটা বিষয় বলেছি।  কিন্তু তিনি (গ্যাম্বল)আমাকে উল্টো কথা বলে যাচ্ছেন, যেন আমার কথা তিনি শুনতেই পাননি।

গ্যাম্বল অবশ্য সঙ্গে সঙ্গেই রুশ প্রেসিডেন্টের কথার প্রতিবাদ করে বলেন, পুতিনের কথা তিনি স্পষ্ট ‘শুনতে’ পেয়েছেন। এ সময় গ্যাম্বল বলেন, রাশিয়া কেন গ্যাস সরবরাহ ইস্যু নিয়ে কোনো পদক্ষেপের ব্যাপারে এতো সময় নিচ্ছে, ঠিক সেই বিষয়টাই জানতে চাইছেন তিনি।

গ্যাম্বলের এই প্রশ্নে নিজের বিরক্তি লুকাতে পারেননি পুতিন। জবাবে তিনি বলেন, আপনি (গ্যাম্বল) এই মাত্র বললেন আমরা ইউরোপে পাইপলাইনে গ্যাস সরবরাহ করছি না। কিন্তু আপনি ভুল বুঝেছেন। আমরা ইউরোপে সরবরাহ বাড়াচ্ছি। গ্যাজপ্রম ১০ শতাংশ সরবরাহ বাড়িয়েছে। রাশিয়া মোট ১৫ শতাংশ গ্যাস সরবরাহ বাড়িয়েছে। আমরা সরবরাহ বাড়িয়েছি, কমাইনি।

তিনি আরও বলেন, আমি কী আসলে এমন কিছু বলেছি যা বুঝতে অসুবিধা হয়?

ওই সময় পুতিন ইউরোপের চলমান গ্যাস সংকটের জন্য যুক্তরাষ্ট্র আংশিক দায়ী মন্তব্য করেন।

বৈশাখী নিউজ/ এপি