দুঃস্বপ্নের বিশ্বকাপ মিশন শেষে দেশে ফিরছেন বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা

বাংলাদেশের বিশ্বকাপ মিশন শেষ, এবার পালা দেশে ফেরার। ক্রিকেটাররা ফিরতেও শুরু করেছেন দেশে। তবে একসঙ্গে নয়।

দুই ভাগে ভাগ হয়ে ঢাকার বিমান ধরছেন বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। আর কেউ কেউ কাটাচ্ছেন ছুটিও। কোচরাও আছেন ছুটিতে।

শুক্রবার (৫ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টায় প্রথম ভাগে ৭ জন ক্রিকেটার দেশের বিমান ধরেন। তারা হলেন শরিফুল ইসলাম, নাইম শেখ, নাসুম আহমেদ, মোস্তাফিজুর রহমান, রুবেল হোসেন, আফিফ হোসেন ও শামীম পাটোয়ারী। তাদের সঙ্গে ছিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী ও সিনিয়র মিডিয়া ম্যানেজার রাবিদ ইমাম।

আর ছুটি কাটাতে দুবাইয়ে থেকে যাচ্ছেন মাহমুদউল্লাহ, মুশফিকুর রহিম, লিটন দাস ও তাসকিন আহমেদ। ছুটিতে আছেন রাসেল ডমিঙ্গোসহ কোচিং স্টাফরাও। তাদের সবার ফেরার কথা রয়েছে ১১ নভেম্বর।

দলের সঙ্গে থাকা নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘সকাল সাড়ে ১০টা ও বিকাল সাড়ে ৪টার দুটি ফ্লাইটে ভাগ হয়ে দেশে ফিরছে বাংলাদেশ দল। মাহমুদউল্লাহ ও মুশফিকুর , লিটন ও তাসকিন থেকে যাচ্ছে। আর কোচরাও এখন যাবেন না। তাদের ১১ তারিখ বাংলাদেশে ফেরার কথা রয়েছে।’

সুপার টুয়েল্ভের প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কার কাছে ফিল্ডারদের একাধিক ক্যাচ মিসে ৫ উইকেটে হার, দ্বিতীয় ম্যাচে ইংল্যান্ডের কাছে একপেশে ম্যাচে ৮ উইকেটে পরাজয়। তৃতীয় ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে জয় পেতে পেতেও ধরা দেয়নি, হার ৩ রানে। চতুর্থ ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ৮৪ রানে অলআউট হয়ে ৬ উইকেটে ও শেষ ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে মাত্র ৭৩ রানে অলআউট হয়ে ৮ উইকেটের বিশাল পরাজয়।

সবকিছু মিলিয়ে বাংলাদেশের এই বিশ্বকাপ কেটেছে দুঃস্বপ্নের মতো।

বৈশাখী নিউজ/ ইডি