সিরিয়ার লাতাকিয়ায় ইসরাইলের ক্ষেপণাস্ত্র হামলা

ইসরাইল মঙ্গলবার রাতে আবারও সিরিয়ার উপকূলীয় শহর লাতাকিয়ায় ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে।

তবে সিরিয়ার আকাশ প্রতিরক্ষাব্যবস্থা সেই হামলা প্রতিহত করেছে। লাতাকিয়া হচ্ছে— সিরিয়ার সবচেয়ে বড় বন্দরনগরী। খবর সানার।

সিরিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা সানা জানিয়েছে, মঙ্গলবার রাতের প্রথম প্রহরে ইসরাইলি বাহিনী ওই হামলা চালায়।

এ হামলায় সিরিয়ায় কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেছে কিনা তা এখনও পরিষ্কার নয়; তবে তাকিয়া বন্দরে থাকা বেশ কিছুসংখ্যক কনটেইনারে আগুন ধরে যায়।

২০ দিন আগেও ইসরাইলি বাহিনী লাতাকিয়া বন্দরে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছিল।

১৯৬৭ সালে ছয় দিনের আরব-ইসরাইল যুদ্ধের সময় ইহুদিবাদী ইসরাইল সিরিয়ার গোলান মালভূমির বিরাট অংশ দখল করে নেয়। এর পর আনুষ্ঠানিকভাবে দুপক্ষ যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করেনি।

গোলান মালভূমিতে ইসরাইল বড় রকমের সেনা উপস্থিতি বজায় রেখেছে। ১৯৬৭ সালে গোলান দখলের পর ১৯৮১ সালে তা ইসরাইলের সঙ্গে একীভূত করে নেয়।

তবে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় এখন পর্যন্ত গোলান মালভূমিকে ইসরাইলের অংশ বলে স্বীকার করেনি। শুধু সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প গোলান মালভূমিকে ইসরাইলের অংশ হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছিলেন। এ নিয়ে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে তিনি ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েন।
বৈশাখী নিউজ/ ইডি