মিয়ানমারকে সাবমেরিন উপহার দিল চীন

মিয়ানমারকে নতুন একটি সাবমেরিন উপহার দিয়েছে চীন। গত ২৪ ডিসেম্বর মিয়ানমার নৌবাহিনীর ৭৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর দিনে চীনের তরফ থেকে ডিজেল-ইলেকট্রিক সাবমেরিন উপহার দেওয়া হয়। এর মাধ্যমে মিয়ানমারের নৌবাহিনী এখন দুইটি সাবমেরিন মালিক হল।

মিয়ানমারের দৈনিক ইরাবতীর খবরে বলা হয়েছে, গত সপ্তাহে ইয়াঙ্গুনে সিনিয়র জেনারেল মিন অং হ্লাইংয়ের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত নৌবাহিনীর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে এই সাবমেরিনটি চীনের তরফ থেকে হস্তান্তর করা হয়।

চীনের দেওয়া নতুন এই সাবমেরিনটি দুই পদ্ধতি চালানো যাবে। এটি ডিজেল এবং ইলেকট্রিক- দুই ভাবে পরিচালিত হয়। এর আগে ২০১৯ সালের ডিসেম্বর মাসে ভারতের কাছ থেকে রাশিয়ার তৈরি একটি কিলো ক্লাস সাবমেরিন ক্রয় করে মিয়ানমার। আইএনএস সিন্ধুবীর নামের ওই সাবমেরিনটি মিয়ানমার নৌবাহিনীতে ইউএমএস মিনে থেইনখাতু নামে যুক্ত হয়।

বর্তমানে যুক্ত হওয়া মিন ইয়ে কিয়াও তিন নামক দ্বিতীয় এ সাবমেরিনটি চীনের তৈরি একটি মিং ক্লাস টাইপ ০৩৫ সাবমেরিন। এটি দেশটির নৌবাহিনীতে অ্যাটাক সাবমেরিন ও প্রশিক্ষণ সাবমেরিন উভয় হিসেবে কাজ করবে।

উল্লেখ্য, মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর জন্য অস্ত্র ও রসদ সরবরাহকারী অন্যতম দেশ হচ্ছে চীন। বর্তমানে মিয়ানমার রাশিয়া থেকে আরেকটি আরও উন্নততর কিলো ক্লাস সাবমেরিন কেনার জন্য আলোচনা চালাচ্ছে।

বৈশাখী নিউজ/ জেপা