বর্ষসেরা পুরুষ টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটারের কাতারে যারা

বর্ষসেরা টেস্ট ক্রিকেটারের চারজনের সংক্ষিপ্ত তালিকা মঙ্গলবার প্রকাশ করেছিল আইসিসি। পরের দিন তারা জানাল বর্ষসেরা টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটারের মনোনীতদের নাম, যেখানে স্পষ্ট বিশ্বকাপ পারফরম্যান্সের প্রতিফলন।

এই বছরের বর্ষসেরা পুরুষ টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটার হওয়ার দৌড়ে আছেন মোহাম্মদ রিজওয়ান, জস বাটলার, ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা ও মিচেল মার্শ।

পাকিস্তানের উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান রিজওয়ান কুড়ি ওভারের ক্রিকেটে এই বছর রাজত্ব করেছেন। মাত্র ২৯ ম্যাচ খেলে করেছেন মোট ১৩২৬ রান। গড় ৭৩.৬৬ ও স্ট্রাইক রেট ১৩৪.৮৯। শুধু ব্যাট হাতে বিস্ফোরণ তুলেই ক্ষান্ত হননি তিনি, স্টাম্পের পেছনেও ছিলেন দুর্দান্ত। আর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে পাকিস্তানকে নিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন, শেষ করেন টুর্নামেন্টের তৃতীয় সর্বোচ্চ রান করে।

শ্রীলঙ্কার হাসারাঙ্গার জন্য স্মরণীয় বছর কেটেছে। ছোট্ট ফরম্যাটে অন্যতম সেরা স্পিনার হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন, প্রয়োজনে ব্যাট হাতেও অবদান রেখেছেন। হাসারাঙ্গা সবচেয়ে বেশি আলো ছড়ান সংযুক্ত আরব আমিরাত ও ওমানের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে। ১৬ উইকেট নিয়ে শীর্ষ বোলার হিসেবে টুর্নামেন্ট শেষ করেছেন এবং আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ৭১ রানের ঝকঝকে ইনিংস খেলেন।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার সাফল্য মনোনীতের তালিকায় এনে দিয়েছে মার্শকে। লোয়ার ডাউনের ফিনিশার হিসেবে দীর্ঘদিন খেললেও এই বছরের মাঝামাঝিতে তাকে তিন নম্বরে ব্যাট করতে দেওয়া হয়। নিজের সামর্থ্যের প্রমাণ দিয়ে টি-টোয়েন্টিতে দলের সেরা ব্যাটসম্যান হিসেবে জাত চেনান।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও বাংলাদেশে অস্ট্রেলিয়ার হতশ্রী ব্যাটিংয়ে কেবল জ্বলেছেন মার্শ। ওই আত্মবিশ্বাস কাজে লাগিয়ে ফলপ্রসূ ভূমিকা রাখেন বিশ্বকাপে। ৬ ম্যাচে ৬১.৬৬ গড় ও ১৪৬.৮২ স্ট্রাইক রেটে ১৮৫ রান করেন। নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে ফাইনালে ম্যাচ জয়ী অপরাজিত ৭৭ রান করেন এবং হন ম্যাচসেরা।

বাটলার বছরের প্রথম টি-টোয়েন্টি সিরিজে ভারতের মাটিতে হাফ সেঞ্চুরির দুটি ঝলমলে ইনিংস খেলেন। ইংল্যান্ডের এই তারকা ব্যাটসম্যান শ্রীলঙ্কা ও পাকিস্তানের বিপক্ষেও টানা দুই সিরিজে ফিফটি হাঁকান, যদিও খেলেননি সব ম্যাচ।

দলের নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান হয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে পা রাখেন বাটলার। টানা দুটি ম্যাচে দুর্দান্ত দুটি ইনিংস ছিল- অস্ট্রেলিয়া ও শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৭১ ও ১০১ রানে অপরাজিত ছিলেন।

২৬৯ রান করে টুর্নামেন্ট শেষ করেন ইংল্যান্ডের শীর্ষ ব্যাটসম্যান হয়ে। তবে ফাইনাল খেলার স্বপ্ন ভেঙে যায় নিউ জিল্যান্ডের কাছে সেমিফাইনালে হেরে।

মঙ্গলবার এক বিজ্ঞপ্তিতে আইসিসি জানায়, আগামী ২৩ ও ২৪ জানুয়ারি পুরুষ ও নারীদের বর্ষসেরা ঘোষণা করা হবে। সব মিলিয়ে এই বছর ১৩টি ব্যক্তিগত পুরস্কার দেওয়া হবে। অন্য ক্যাটাগরির মনোনীতদের তালিকা আগামী ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে প্রকাশ করা হবে।

বৈশাখী নিউজ/ ইডি