ইউক্রেন ইস্যুতে আজ বাইডেন-পুতিন ফোনালাপ

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবং রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ইউক্রেন ইস্যুসহ পূর্ব ইউরোপে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে টেলিফোনে কথা বলতে যাচ্ছেন। হোয়াইট হাউস জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের পূর্বাঞ্চলীয় সময় বিকেল সাড়ে ৩টায় (বাংলাদেশ সময় রাত আড়াইটায়) ফোনে কথা বলবেন প্রেসিডেন্ট বাইডেন ও প্রেসিডেন্ট পুতিন।

বৃহস্পতিবার (৩০ ডিসেম্বর) উভয় নেতা ফোনে কথা বলবেন। খবর রয়টার্স ও সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা।

অন্যদিকে যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল সিকিউরিটি কাউন্সিলের মুখপাত্র এমিলি হর্ন এই ফোনালাপ সম্পর্কে এক বিবৃতিতে বলেছেন, ফোনালাপে এই দুই নেতা ‘আসন্ন কূটনৈতিক সংশ্লিষ্টতার বিষয়সহ বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে আলোচনা করবেন’।

সংবাদমাধ্যম ভয়েস অব আমেরিকা জানিয়েছে, ইউক্রেনের সীমান্তের কাছে আনুমানিক এক লাখ রাশিয়ান সৈন্যর সমাবেশ দেখে মস্কো ইউক্রেন আক্রমণ করার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে, এমন আশঙ্কা থেকেই যুক্তরাষ্ট্র এবং পশ্চিমা মিত্রদের পক্ষ থেকে আলোচনাটি হতে চলেছে।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন বুধবার ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির সাথে কথা বলেছেন। এ বিষয়ে মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের মুখপাত্র নেড প্রাইস বলেছেন, ইউক্রেন সীমান্তে রাশিয়ার সামরিক উপস্থিতির মুখে ইউক্রেনের স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব এবং আঞ্চলিক অখণ্ডতার প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের জোরালো সমর্থন পুনর্ব্যক্ত করেছেন ব্লিংকেন।

নেড প্রাইস আরও বলেন, ইউক্রেনের নেতার সঙ্গে ফোনালাপে উভয় নেতা পূর্ব ইউক্রেনের উত্তেজনাপূর্ণ পরিস্থিতির শান্তিপূর্ণ সমাধানের প্রচেষ্টা এবং রাশিয়ার সাথে আসন্ন কূটনৈতিক আলোচনার বিষয়ে আলোকপাত করেছেন।

এর আগে চলতি সপ্তাহের শুরুতে প্রেসিডেন্ট পুতিন বলেছিলেন, পশ্চিমারা যদি ইউক্রেনে সামরিক জোট ন্যাটোর সম্প্রসারণের পরিকল্পনা পরিহার করে নিরাপত্তা নিশ্চিতের জন্য তার দাবি পূরণ করতে ব্যর্থ হয়, তবে তিনি বেশ কয়েকটি বিকল্পের বিষয়ে চিন্তা করবেন।

বৈশাখী নিউজ/ জেপা