১১৩ দিন পর ইন্দোনেশিয়ায় সাগর থেকে ১২০ রোহিঙ্গা উদ্ধার

১১৩ দিন পর ইন্দোনেশিয়ার উত্তরাঞ্চলীয় আচেহ প্রদেশের কাছে সাগর থেকে অন্তত ১২০ জন রোহিঙ্গাকে উদ্ধার করেছে দেশটির নৌবাহিনী। জানা গেছে, প্রদেশের নিকটবর্তী নৌবন্দরের কাছে একটি আশ্রয়কেন্দ্রে নেয়া হয়েছে। যাদের অধিকাংশই নারী ও শিশু।

এসব রোহিঙ্গা একটি কাঠের নৌকায় মালয়েশিয়ার উদ্দেশে পাড়ি জমিয়েছিলেন।

বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম জানায়, কাঠের ওই নৌকাটিতে ফুঁটো দেখা দিয়েছিল এবং এর ইঞ্জিন নষ্ট হয়ে গিয়েছিল। বেশ কয়েকদিন ধরেই ইন্দোনেশিয়ার কাছে সাগরে রোহিঙ্গাদের নিয়ে ওই নৌকাটি ভাসছিল।

বিষয়টি নিয়ে ইন্দোনেশিয়ার নৌবাহিনীর পশ্চিম-বহরের কমান্ড মুখপাত্র কর্নেল লা ওদি এম হলিব বলেন, উঁচু ঢেউ ও খারাপ আবহাওয়ার কারণে উদ্ধার অভিযান ব্যহত হয়েছে। রোহিঙ্গাবাহী ভাসমান নৌকাটিকে ধরতে ঘণ্টায় ৫ দশমিক ৭ মাইল পথ অতিক্রম করছিল নৌবাহিনীর জাহাজ।

বৃহস্পতিবার মধ্যরাতের কিছু পর নৌকাটিকে নিরাপদে ডকে ভেড়ানো সম্ভব হয়।

উদ্ধারের পর প্রবল বর্ষণের মধ্যে কর্তৃপক্ষ বাসে করে রোহিঙ্গাদের একটি সাময়িক আশ্রয়কেন্দ্রে নিয়ে যায়। কর্নেল লা ওদি এম হলিব বলেন, সব শরণার্থীদের করোনা পরীক্ষা করা হবে। যদিও অন্য এক খবরে বলা হয়, দীর্ঘ ১৮ ঘণ্টা ধরে চলে এ উদ্ধার অভিযান।

সূত্র : পার্সটুডে।

বৈশাখী নিউজ/ জেপা