‘যুক্তরাষ্ট্রে মহামারি শেষ হয়েছে’

যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ ও প্রেসিডেন্টের স্বাস্থ্য বিষয়ক উপদেষ্টা ডা. অ্যান্থনি ফাউসি বলেছেন, করোনার মহামারি পর্যায় পেরিয়ে গেছে যুক্তরাষ্ট্র। মঙ্গলবার মার্কিন সংবাদমাধ্যম পিবিএস নিউজ আওয়ারকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে যুক্তরাষ্ট্রের করোনা পরিস্থিতির মূল্যায়ন প্রসঙ্গে এ মন্তব্য করেছেন তিনি।

পিবিএস নিউজ আওয়ারকে ডা. ফাউসি বলেন, ‘গত কিছুদিন ধরে আমরা দেখছি, প্রতিদিন করোনা পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৯০ হাজারের চেয়ে বেশ কম; হাসপাতালগুলোতেও আগের মতো লাখ লাখ গুরুতর অসুস্থ করোনা রোগীর উপস্থিতি নেই এবং এই রোগে দৈনিক মৃত্যুর হার হাজারের চেয়ে অনেক নিচে নেমে এসেছে।’

‘এসব খুবই ইতিবাচক ব্যাপার এবং আমরা এখন বলতেই পারি যে, যুক্তরাষ্ট্র করোনা ভাইরাসের মহামারির স্তর অতিক্রম করতে সক্ষম হয়েছে। এই মুহূর্তে নিশ্চিতভাবেই আমরা আর মহামারির মধ্যে নেই।’

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে বিশ্বের প্রথম করোনায় আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। করোনায় প্রথম মৃত্যুর ঘটনাটিও ঘটেছিল চীনে।

তারপর অত্যন্ত দ্রুতগতিতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে পড়তে শুরু করে প্রাণঘাতী এই ভাইরাসটি। পরিস্থিতি সামাল দিতে ২০২০ সালের ২০ জানুয়ারি বিশ্বজুড়ে জরুরি অবস্থা জারি করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

কিন্তু তাতেও অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় অবশেষে ওই বছরের ১১ মার্চ করোনাকে মহামারি হিসেবে ঘোষণা করে ডব্লিউএইচও।

যুক্তরাষ্ট্রে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় ২০২০ সালের ২০ জানুয়ারি। তারপর থেকে এ পর্যন্ত এই রোগে মোট সংক্রমণ ও মৃত্যুর হিসাবে বিশ্বের সব দেশের মধ্যে শীর্ষে আছে যুক্তরাষ্ট্র।

সরকারি হিসাব অনুযায়ী, ২০২০ সালের ২০ জানুয়ারি থেকে ২০২২ সালের ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন মোট ৮ কোটি ২৮ লাখ ৮৮ হাজার ২৪৭ জন এবং কোভিডজনিত অসুস্থতায় ভুগে মারা গেছেন মোট ১০ লাখ ১৯ হাজার ৭৭৪ জন।

মহমাারির গত ২ বছরে বিভিন্ন সময় করোনার দৈনিক সংক্রমণ-মৃত্যুর উল্লম্ফন দেখেছে যুক্তরাষ্ট্র। প্রতিদিন প্রায় ১০ লাখ আক্রান্ত এবং ৪ হাজার মৃত্যু ঘটছে— এমন পর্যায়ও পার করেছে দেশটি।

তবে সম্প্রতি এই রোগের প্রাদুর্ভাব বেশ কমেছে যুক্তরাষ্ট্রে। মার্কিন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, গত এক সপ্তাহে দেশটিতে করোনা পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ৩ লাখ ৬৬ হাজার ১১৫ জন এবং কোভিডজনিত অসুস্থতায় মারা গেছেন ২ হাজার ১০৪ জন।

এর মধ্যে বুধবার যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫৭ হাজার ৭৩৮ জন এবং এই রোগে মৃত্যু হয়েছে ৩১১ জনের।

তবে যুক্তরাষ্ট্রে কোভিড পরিস্থিতির লক্ষ্ণীয় উন্নতি ঘটলেও বিশ্ব এখনও মহামারিমুক্ত হয়নি বলে মনে করেন ডা. ফাউসি। সাক্ষাৎকারে এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র মহামারিমুক্ত হলেও বিশ্ব কিন্তু এখনও মহামারিমুক্ত হয়নি। বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন প্রান্তে এখনও করোনা মহামারি চলছে এবং সেই হিসেবে আমরা, পৃথিবীর প্রতিটি মানুষ এখনো মহমারির মধ্যেই আছি।’

৮১ বছর বয়স্ক ফাউসি আরও বলেন, ‘আর এ কারণেই করোনা বিষয়ক স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা এখনো গুরুত্বহীন হয়ে যায়নি।’ সূত্র: এনবিসি, আরটি

বৈশাখী নিউজ/ ইডি