প্রীতি এল ক্লাসিকো ম্যাচে অপ্রীতিকর ঘটনা!

মৌসুমের আগে ইউরোপের শীর্ষ লিগের ক্লাবগুলো প্রীতি ম্যাচে বিভিন্ন লিগের দলের মুখোমুখি হয়। যাকে বলা হয় প্রাক মৌসুমের প্রীতি ম্যাচ। দুই ক্লাবের মধ্যে সম্প্রীতি বাড়ানো। মৌসুমের আগে নতুন-পুরনো ফুটবলারদের সমন্বয় করা।

ম্যাচ খেলার মধ্য দিয়ে মৌসুমের মূল ম্যাচের জন্য প্রস্তুত হওয়া এই প্রীতি ম্যাচের উদ্দেশ্য। সেজন্য ক্লাবগুলো হার-জিতের চিন্তা না করে একাধিক ফুটবলারকে পরিবর্তন করে খেলান। মৌসুম শুরুর আগে যেন ফুটবলাররা ইনজুরিতে না পড়েন সেদিকে খেয়াল রাখেন।

কিন্তু খেলা যখন রিয়াল মাদ্রিদ এবং বার্সেলোনার, লড়াইয়ের নাম যখন এল ক্লাসিকো তখন প্রীতি ম্যাচও উত্তাপ ছড়ায়। যুক্তরাষ্ট্রের লাস ভেসাগে রিয়ালের বিপক্ষে ১-০ গোলে জিতেছে বার্সেলোনা। গোল করেছেন বার্সার নতুন ব্রাজিলিয়ান উইঙ্গার রাফিনহা।

তবে প্রীতি ওই ম্যাচেও ঘটেছে অপ্রীতিকর ঘটনা। ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ বার্সার হাতে থাকলেও তারা বেশ ফাউল করে খেলেছে। রিয়ালের ছয় ফাউলের বিপরীতে বার্সা ফাউল করেছে ১৫টি। এর মধ্যে ভিনিসিয়াস জুনিয়র, রদ্রিগো গোয়েস ও লুকা মডরিচকে করা ফাউল ছিল গুরুতর।

ওই ঘটনায় বার্সার চারজন হলুদ কার্ডও খেয়েছেন। যেখানে রিয়ালের একজন হলুদ কার্ড দেখেছেন। এর মধ্যে রদ্রিগোকে করা একটি ফাউল নিয়ে দ্বন্দ্ব লেগে যায় দুই পক্ষের। রদ্রিগোকে ধাক্ক দেন বুসকেটস। পাল্টা ছুটে আসেন রদ্রিগো। পরে বুসকেটসকে থামান হ্যাজার্ড। রিয়ালের নতুন ডিফেন্ডার রুডিগার টেনে নিয়ে যান রোনাল্ড অ্যারাজুকে। তাদের মধ্যে তির্যক চোখাচুখিও হয়।

বৈশাখী নিউজ/ জেপা