জয় বাংলা স্লোগানে মুখরিত সোহরাওয়ার্দী উদ্যান

একাদশ সংসদ নির্বাচনে নিরঙ্কুশ জয় উদযাপন করতে জয় বাংলা স্লোগানে মুখরিত সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ও এর আশপাশের এলাকা।

আওয়ামী লীগের ‘বিজয় উৎসব’ উপলক্ষে দুপুর আড়াই টায় ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জনসভা শুরু করেছে আওয়ামী লীগ, যেখানে সভাপতিত্ব করবেন দলীয় সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার সকাল ৯টা থেকে ঢাকাসহ আশপাশের এলাকা থেকে জনসমাগম ঘটতে থাকে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে। বাংলা একাডেমির বিপরীত দিকে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে প্রবেশের জন্য মানুষের দীর্ঘ লাইন সকাল থেকেই।

সমাবেশে লোকজন আসার সুবিধার্থে সকাল ১১টা থেকে শাহবাগের রূপসী বাংলা সিগন্যাল, কাটাবন মার্কেট মোড়, নীলক্ষেত মোড়, চানখাঁরপুল, জিপিও ও মৎসভবন মোড় থেকে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানমুখী সব রাস্তায় যান চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে পুলিশ।

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের বিভিন্ন প্রান্ত ঘুরে দেখা যায়, লাল-সবুজের টি-শার্ট ও মাথায় ক্যাপ পরে পায়ে হেঁটে বা পিকআপ ভ্যান, ট্রাক ও বাসযোগে বিভিন্ন সড়ক ধরে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের দিকে আসছেন ঢাকা মহানগরের বিভিন্ন থানা, ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন থেকে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, মহিলা আওয়ামী লীগ, যুব মহিলা লীগ, শ্রমিক লীগের নেতা-কর্মী-সমর্থকরা।

দলের নেতাকর্মীর পাশাপাশি বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষও দিনটি উদযাপনের জন্য আসছেন উদ্যানে।

রাজধানীর আশপাশের জেলাগুলো থেকেও আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী-ভ্রাতৃপ্রতীম সংগঠনের নেতাকর্মীরা সমাবেশে এসে যোগ দিচ্ছেন। নেতাকর্মীদের মিছিল-স্লোগান ও পদচারণায় মুখরিত হয়ে উঠেছে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের চারপাশ। জয় বাংলা স্লোগানে স্লোগানে মুখরিত হয়ে উঠছে পুরো এলাকা। ঢোল-তবলাসহ বিভিন্ন ধরনের বাদ্যযন্ত্রের ব্যঞ্জনায় পুরো এলাকায় উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে।

গত ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে ২৫৭টি আসনে জয় পেয়েছে আওয়ামী লীগ। জোটগতভাবে তাদের আসন সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৮৮টি।

এই বিজয় স্মরণীয় করে রাখতে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগের প্রতীক নৌকার আদলে তৈরি করা হয়েছে বিশাল মঞ্চ।

বৈঠাসহ ছোট বড় ৪০টিরও বেশি নৌকা, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার ছবি সংবলিত ফেস্টুনে সাজানো হয়েছে সমাবেশ মাঠ।

মূল মঞ্চটি সাজানো হয়েছে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের ইশতেহারের মলাটের রঙে।

দুপুর আড়াইটায় জনসভার মূল কার্যযক্রম শুরু হলেও তিনটায় প্রধানমন্ত্রী মঞ্চে উঠবেন।