জাকির নায়েকের সাড়ে ১৬ কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত

ইসলামি বক্তা জাকির নায়েক ও তার পরিবারের সদস্যদের ১৬ কোটি ৪০ লক্ষ টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করেছে ভারতের কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট৷ বেআইনি আর্থিক লেনদেনের অভিযোগে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইডি। এই নিয়ে তৃতীয়বার জাকির ও তার আত্মীয়দের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হলো। সূত্রের খবর, এখনও পর্যন্ত মোট ৫১ কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে৷

ইডি সূত্রে জানা গেছে, জাকির ও তার পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে একাধিক অবৈধ আর্থিক লেনদেনের প্রমাণ মিলেছে৷ ফলে প্রথমে তাদের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার একটি সাময়িক নির্দেশ জারি করা হয়েছে। মুম্বাইয়ের ফতিমা হাইটস, আফিয়া হাইটসসহ ভান্ডুপ এলাকায় একটি বেনামী প্রজেক্টে জাকিরের আত্মীয়দের বিনিয়োগ রয়েছে বলে জানতে পারেন ইডির তদন্তকারীরা৷ এমনকী, পুনেতে এনগ্রাসিয়া নামের একটি প্রজেক্টের সঙ্গেও তারা জড়িত বলে জানতে পেরেছে ইডি।

তদন্তকারীরা আরও জানিয়েছেন, প্রথমে অর্থ লেনদেন করা হত জাকিরের নিজস্ব ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে৷ কিন্তু পরে তদন্ত শুরু হতেই সেই অর্থ ফিরিয়ে দেওয়া হয় জাকিরের স্ত্রী, ছেলে, ভাগ্নের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে৷ মূলত তদন্তকারীদের চোখে ধুলা দিতে এই প্রচেষ্টা করা হয়৷ ইউএপিএ আইনে ২০১৬ সালে জাকিরের বিরুদ্ধে একটি ফৌজদারি মামলা দায়ের করা হয়৷ ২০১৭ সালের অক্টোবরে মুম্বাইয়ের একটি আদালতে জাকির ও অন্যদের বিরুদ্ধে চার্জশিটও দায়ের করে এনআইএ।