দুর্নীতি সূচকে, বাংলাদেশের ৪ ধাপ অবনতি

ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনালের (টিআই) প্রকাশ করা দুর্নীতির ধারণা সূচকে বাংলাদেশের ৪ ধাপ অবনতি হয়েছে।

এর কারণে সবচেয়ে দুর্নীতিগ্রস্ত দেশের তালিকায় বর্তমানে বাংলাদেশের অবস্থান ১৩তম। একই অবস্থানে রয়েছে উগান্ডা ও সেন্ট্রাল আফ্রিকান রিপাবলিক।

মঙ্গলবার রাজধানীর মাইডাস সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে দুর্নীতি ধারণা সূচক (সিপিআই) প্রতিবেদনে সংস্থাটি এ কথা জানায়।

গত বছরের তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ১৭ তম। জার্মানির বার্লিনভিত্তিক প্রতিষ্ঠান টিআইয়ের প্রকাশ করা দুর্নীতির ধারণাসূচক ২০১৮-এর প্রতিবেদনে এসব তথ্য উঠে এসেছে।

এই প্রতিবেদনে ১৮০টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ১৪৯তম। দক্ষিণ এশিয়ার ৮ দেশের মধ্যে ষষ্ঠ।

এ বছর সবচেয়ে কম দুর্নীতিগ্রস্থ দেশ ডেনমার্ক। ২য় অবস্থানে নিউজিল্যান্ড, ৩য় অবস্থানে আছে ফিনল্যান্ড, সুইজারল্যান্ড, সিংগাপুর, সুইডেন। সবচেয়ে দুর্নীতিগ্রস্থ দেশ হলো সোমালিয়া। এশিয়ার মধ্যে সবচেয়ে দুর্নীতিগ্রস্থ দেশ উত্তর কোরিয়া।

টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, এই অবনতির কারণ প্রভাবশালী দুর্নীতিবাজদের না ধরা, রাজনৈতিক প্রভাব, অর্থপাচারে ব্যবস্থা না নেওয়া।

এর আগে দুর্নীতি সূচকে বাংলাদেশ ২০০৬ সালে তৃতীয়, ২০০৭ সালে সপ্তম, ২০০৮ সালে ১০ তম, ২০০৯ সালে ১৩ তম, ২০১০ সালে ১২ তম, ২০১১ ও ২০১২ সালে ১৩ তম, ২০১৩ সালে ১৬ তম, ২০১৪ সালে ১৪ তম, ২০১৫ সালে ১৩ তম, ২০১৬ সালে ১৫ তম এবং ২০১৭ সালে ১৭ তম হয়।

২০০১ সাল থেকে ২০০৫ সাল পর্যন্ত সময়ে সিপিআই সূচকে সবচেয়ে দুর্নীতিগ্রস্ত দেশের তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান ছিল প্রথম।