খালেদা জিয়ার প্যারোলে মুক্তির বিষয়ে যা বললেন প্রধানমন্ত্রী

বিএনপির নির্বাচিতদের শপথ নেয়ার বিষয়ে সরকারের কোনো চাপ নেই জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, দলটি থেকে নির্বাচিতরা স্বেচ্ছায় সংসদে আসছেন।

শুক্রবার (২৬ এপ্রিল) গণভবনে ব্রুনাই সফর পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে সন্ত্রাসবাদকে বৈশ্বিক সমস্যা উল্লেখ করে তিনি বলেন, বাংলাদেশ এই ঝুঁকির বাইরে নয়। জঙ্গিবাদ রুখতে সাধারণ মানুষকে এগিয়ে আসার পাশাপাশি এর জন্য সামাজিক সচেতনতা গড়ে তোলার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।

টানা তৃতীয় মেয়াদে ক্ষমতায় আসার পর প্রথমবারের মতো সংবাদকর্মীদের মুখোমুখি হলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গণমাধ্যমের সামনে তুলে ধরলেন সম্প্রতি শেষ হওয়া ব্রুনাইয়ে দ্বিপাক্ষিক সফরের খুঁটিনাটি বিষয়।

শুক্রবার (২৬ এপ্রিল) বিকেলে গণভবনে আয়োজিত এই সংবাদ সম্মেলনে উঠে আসে সমসাময়িক নানা ইস্যু। বৈশ্বিক সন্ত্রাসবাদের ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ ঝুঁকিতে থাকলেও সজাগ রয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, জঙ্গিবাদে জড়িতদের কোনো ধর্ম বা দেশ নেই।

সাংবাদিকদের প্রশ্নে বিএনপির রাজনীতি, দলের নেত্রীর মুক্তি ও এমপিদের শপথ গ্রহণ বিষয়ে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। বলেন, আওয়ামী লীগ দল ভাঙার রাজনীতি করে না।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্যারোলের জন্য আবেদনের প্রয়োজন হয়। যেহেতু এখনও কোনো আবেদন করা হয়নি কাজেই এ ব্যাপারে এখনও কিছুই বলা যাচ্ছে না। আর যারা শপথ গ্রহণ করেছেন তাদের ব্যাপারে সরকারের পক্ষ থেকে কোনো চাপ নাই।

টানা তিন মেয়াদে দেশকে উন্নয়নের সোপানে পৌঁছে দিয়েছেন জানিয়ে আওয়ামী লীগ প্রধান বলেন, দলের পরবর্তী নেতৃত্ব তিনি নয়, ঠিক করবে দল।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, কোন পদ পদবীর লোভে রাজনীতি করিনি। শিক্ষা জীবন থেকেই মিটিং মিছিল করে রাজনীতিতে এসেছি।

বিভিন্ন ক্ষেত্রে অপপ্রচার ঠেকাতে গণমাধ্যম কর্মীদের যথাযথ দায়িত্ব পালনের আহ্বান জানান সরকার প্রধান শেখ হাসিনা।