করোনাযুদ্ধে জয়ী ১০৩ বছরের বৃদ্ধা, পেলেন দ্বিতীয় জন্ম!

করোনাযুদ্ধে নতুন আশা দেখালেন ১০৩ বছরের বৃদ্ধা। করোনাভাইরাস কাবু করতে পারেনি তাকে। যুদ্ধে জয়ী হয়ে ফিরলেন তিনি। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেন ইতালির এই ১০৩ বছরের বৃদ্ধা আদা জানুসো। মনের জোর আর সহসই ছিল করোনার সঙ্গে লড়াইয়ে তার মূল অস্ত্র। মৃত প্রায় ইতালিতে যেন নতুন প্রাণের দিশা দেখালে জানুসো।

চিকিত্‍সা করেছিলেন তার পরিবারের ৩৫ বছরের পুরনো ডাক্তার। কোয়ারেন্টিনে থাকার সময় টিভি আর খবরের কাগজই ছিল একমাত্র সঙ্গী তার। জ্বর নিয়ে বিছানায় শুয়ে ছিলেন এক সপ্তাহর মতো। চিকিত্‍সকের পরামর্শ মেনেই চলেছেন তিনি। কঠোর নিয়ম আর মনের জোরের কাছে হার মেনেছে করোনাভাইরাসও। একদিকে যে দেশে শয়ে শয়ে মৃত্যু হচ্ছে প্রতিদিন। সেখানে জানুসো যে ব্যাতিক্রমী তাতে কোনো সন্দেহ নেই।

জানুসোর চিকিত্‍সক জানিয়েছেন, ১০৩ বছর হয়ে যাওয়ায় সকলেই উদ্বেগে ছিলেন। যেকোনো মুহূর্তে বড় কিছু ঘটতে পারত। কোনো খাবার খাচ্ছিলেন না তিনি। কেবল মাত্র তরল পানীয় এবং গ্লুকোজ দিয়ে তার শরীরের আর্দ্রতা বজায় রাখা হয়েছিল। তাতেই সুফল মেলে। ধীরে ধীরে চোখ মেলে তাকাতে শুরু করেন তিনি। এখন তো চেয়ারে উঠেও বসছেন। পেলেন দ্বিতীয় জন্ম!

সুস্থ হয়ে জানুসো বলেছেন, অসুস্থতায় মনের জোর অনেকটা বেড়ে যায়। যারা ভয়ে রয়েছেন তারা যেন মনের জোর না হারান এমনই অনুরোধ জানিয়েছেন জানুসো।

ইতালিতে করোনাভাইরাসে এখনো পর্যন্ত ১৮ হাজার মৃত্যু হয়েছে। সেই সংখ্যা প্রতিদিন বাড়ছে। হাসপাতালে রোগীদের জায়গা দেওয়া যাচ্ছে না। একাধিক জায়গা রোগীদের ফুটপাথে শুয়ে থাকতে দেখা দিয়েছে। এমনই ভয়ংকর পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে ইতালিতে।

বৈশাখী নিউজএপি