শততম দিনের আগেই ২০ কোটি মানুষকে টিকা দেওয়া হবে : মার্কিন প্রেসিডেন্ট

 গত জানুয়ারিতে দায়িত্ব নেওয়ার পর প্রথমবারের মতো আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলন করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। এতে দক্ষিণাঞ্চলীয় সীমান্তে বাড়তে থাকা অভিবাসীদের চাপ কিভাবে মোকাবিলা করা হবে তার ওপরেই জোর দেন তিনি। এছাড়া বৃহস্পতিবারের ঘণ্টাব্যাপী সংবাদ সম্মেলনে তিনি বন্দুক এবং পররাষ্ট্র নীতি নিয়ে কথা বলেন। সব ক্ষেত্রেই স্বচ্ছ থাকার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

নিজের প্রথম সংবাদ সম্মেলনে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন প্রধানের লক্ষ্যমাত্রা দ্বিগুণ করার ঘোষণা দিয়েছেন। নিজের কার্যমেয়াদের প্রথম একশ’ দিনে দশ কোটি ডোজ দেওয়ার কথা বলে আসলেও বৃহস্পতিবার বাইডেন বলেন, শততম দিনের আগেই ২০ কোটি মানুষকে টিকা দেওয়া হবে। তবে সংবাদ সম্মেলনে ঘুরে ফিরেই আসতে থাকে যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো সীমান্তের অভিবাসন পরিস্থিতি।

যুক্তরাষ্ট্রের সরকারি আটক কেন্দ্রে বর্তমানে ১৭ হাজারের বেশি শিশু রয়েছে। বাইডেনের নীতির কারণে অভিবাসী শিশুদের যুক্তরাষ্ট্রে আগমন বাড়বে কিনা সেই চ্যালেঞ্জও রয়েছে। তবে দক্ষিণ সীমান্তে মানবিক সংকট বাড়তে থাকার জন্য পূর্বসূরি ডোনাল্ড ট্রাম্পকে দায়ী করেন বাইডেন। হোয়াইট হাউজের সংবাদ সম্মেলনে বাইডেন বলেন, শীতের মাসগুলোতে অভিবাসীদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ বেড়ে যাওয়া সাধারণ ঘটনা।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেন, ‘সত্যি বিষয়টা হলো কোনও কিছু বদলায়নি। এই সময়ে তাদের আসার কারণ মরুভূমির গরমে এই সময়ে তাদের মৃত্যুর আশঙ্কা কম।’ এছাড়া অভিবাসীদের নিজ নিজ দেশের পরিস্থিতি যেমন প্রাকৃতিক বিপর্যয়, অপরাধ এবং অর্থনৈতিক সুযোগের অভাবকেও দায়ী করেন তিনি।

যুক্তরাষ্ট্রের সরকারি আটক কেন্দ্রগুলোতে সাংবাদিকদের প্রবেশ করতে দেওয়া হবে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে প্রেসিডেন্ট বাইডেন মনে করিয়ে দেন, স্বচ্ছ থাকার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি। কোনও সময়সীমা না নিয়ে তিনি বলেন, ‘আপনারা সবকিছুতেই প্রবেশের সুযোগ পাবেন।’

যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুক নিয়ন্ত্রণ থেকে শুরু করে আগের প্রশাসনের প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী ১ মে’র মধ্যে আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা সরিয়ে আনা সম্ভব হবে কিনাসহ নানা বিষয়ে প্রশ্নের জবাব দেন বাইডেন। তিনি স্বীকার করেন, এই সময় সীমা বাস্তবায়ন কঠিন হবে। বন্দুক নিয়ন্ত্রণকে দীর্ঘমেয়াদী সমস্যা হিসেবে আখ্যা দেন তিনি। এছাড়া ২০২৪ সালে পুনর্নির্বাচনে লড়ার পরিকল্পনা করছেন বলেও জানান বাইডেন।

বৈশাখী নিউজবিসি