বিদেশফেরত যাত্রীদের বাধ্যতামূলক ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে

করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় যুক্তরাজ্যসহ ইউরোপের বিভিন্ন দেশ থেকে আসা সব যাত্রীকে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন বাধ্যতামূলক করেছে সরকার। গত সপ্তাহ থেকেই দেশে আবারো করোনাভাইরাসের সংক্রমণ হু হু করে বাড়ছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল সোমবার ১৮ দফা নির্দেশনা দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে সরকার। যেখানে বলা হয়, বিদেশফেরত যাত্রীদের বাধ্যতামূলক ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে।

আগামীকাল বুধবার থেকেই এ নিয়ম কার্যকর হবে বলে আজ মঙ্গলবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে বাংলাদেশ বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক)।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, যে কোনো দেশ থেকে বাংলাদেশে আসার সময় সে দেশের বিমানবন্দর এবং বাংলাদেশের বিমানন্দরে যাত্রীদের সঙ্গে অবশ্যই কোভিডমুক্ত সনদ দেখাতে হবে। বিমানে ওঠার ৭২ ঘণ্টা বা তার কম সময়ের মধ্যে নমুনা দিয়ে পিসিআর টেস্টের মাধ্যমে এই কোভিডমুক্ত সনদ পেতে হবে। টিকা দেওয়া থাকলেও এ নিয়ম প্রযোজ্য হবে।

মঙ্গলবার দুপুর পর্যন্ত হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ট্রানজিট হয়ে দুবাই ও কাতারের ফ্লাইটে আসা লন্ডনফেরত ১৫ যাত্রীকে কোয়ারেন্টিনে নেওয়া হয়। প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে জন্য যাত্রীদের আশকোনা হজক্যাম্পে রাখার ব্যবস্থা করা হয়।

তবে শাহজালাল বিমানবন্দরে এখন পর্যন্ত কেবল ইউরোপ থেকে আসা যাত্রীদেরই কোয়ারেন্টিনে নেওয়া হচ্ছে। এদিকে বেনাপোলে স্থলবন্দরে ভারত ফেরত যাত্রীদের রাখার জায়গা নির্ধারিত না হওয়ায় চালু হয়নি কোয়ারেন্টিন ব্যবস্থা।

বৈশাখী নিউজফাজা