করোনায় মার্কিন সিনেটর সদস্যের মৃত্যু

করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ওয়াশিংটন রাজ্যের কট্টর রক্ষণশীল সিনেট সদস্য ডোগ এরিকসেন। গত শুক্রবার (১৭ ডিসেম্বর) এল সালভাদর সফরকালে তিনি মারা যান। মৃত্যুকালে তার বয়স ছিল ৫২ বছর।

এনবিসি নিউজের প্রতিবেদনে জানা যায় এক সপ্তাহ আগে তার করোনা শনাক্ত হয়েছিল। অবশ্য মৃত্যুর কারণ তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি। পরদিন শনিবার সিনেট রিপাবলিকান ককাস তার মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছে।

এর আগে গত মাসে এরিকসেন রিপাবলিকান সহকর্মীদের বলেছিলেন, তিনি এল সালভাদরে ভ্রমণ করেছেন। সেখানে পৌঁছার পরই তার করোনা শনাক্ত হয়েছে। অবশ্য সেখানে যাওয়ার কারণ সম্পার্কে সুস্পষ্ট কিছু জানানি। তিনি সহকর্মীদের কাছে মনোক্লোনাল অ্যান্টিবডি গ্রহণের উপায় সম্পর্কে পরামর্শ চেয়েছিলেন। তখন তা ল্যাটিন আমেরিকায় ছিল না।

এরিকসেন হোয়াটকম কাউন্টির ৪২তম ডিটট্রিক্টের প্রতিনিধি ছিলেন। ১৯৯৮ সাল থেকে তিনি আইনসভার সদস্য হিসেবে ছিলেন। ২০১০ সালে সিনেট সদস্য নির্বাচিত হওয়ার আগে রাজ্যসভায় তিনি ছয় বার দায়িত্ব পালন করেছিলেন।

এছাড়াও ওয়াশিংটনে ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রচারণার সাবেক নেতা ছিলেন এরিকসেন। তিনি ডেমোক্র্যাটিক গভর্নমেন্ট জে ইনসলির কভিড-১৯ বিষয়ক জরুরি আদেশের সুস্পষ্ট সমালোচক ছিলেন এবং যারা টিকা নিতে চান না তাদের অধিকার রক্ষার লক্ষ্যে আইন প্রবর্তন করেছিলেন। অবশ্য এরিকসেনকে করোনা টিকা দেওয়া হয়েছিল কিনা তা স্পষ্ট নয়।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের দূর্যোগ প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণ বিভাগ এক বিবৃতিতে জানিয়েছিল, এল সালভাদর যাওয়ার আগে সবার করোনা টিকার পুরো ডোজ গ্রহণ করা উচিত। কারণ বর্তমান সেখানে কোভিড-১৯-এর উচ্চ মাত্রা বিরাজমান।

সূত্র : এনবিসি নিউজ

বৈশাখী নিউজ/ ইডি