২৫০ কুকুর হত্যার অভিযোগে মহারাষ্ট্রে দুই বাঁদর গ্রেপ্তার!

মহারাষ্ট্রের ঘটনা। একটি বাচ্চা বাঁদরকে মারে কয়েকটি কুকুর। তার প্রতিশোধ নিতে ২৫০টি কুকুরের বাচ্চা মারে দুই বাঁদর।

মহারাষ্ট্রের বনদপ্তর দুই বাঁদরকে ধরেছে। তাদের ধরার জন্য নাগপুর বনদপ্তরের বিশেষ দল যায়। বাঁদর দুইটিকে ধরে নাগপুর নিয়ে আসা হয়েছে।

এই দুই বাঁদর অন্ততপক্ষে ২৫০টি ছোট কুকুর ও কুকুরের বাচ্চাকে মেরেছে। গত কয়েক মাস ধরে তারা লাভোল ও তার আশপাশের গ্রামে কুকুরের বাচ্চা দেখলেই তাকে ধরে নিয়ে বড় গাছের উপরে চলে যেতো। তারপর উঁচু থেকে ছুঁড়ে ফেলে দিতো। এভাবেই একের পর এক কুকুরের বাচ্চা মেরেছে তারা।

তার আগে কুকুর গিয়ে তাদের বাচ্চাকে মেরে ফেলে। তারপর থেকেই দুই বাঁদর প্রতিশোধ নিতে থাকে। সম্প্রতি ওই দুই বাঁদর কয়েকটি স্কুল ছাত্রছাত্রীকেও আক্রমণ করে। তারপর গ্রামবাসীরা বনদপ্তরে গিয়ে নালিশ করে।

দুই বাঁদরের তাণ্ডবে শুধু যে গ্রামবাসী বা বনদপ্তরের কর্মীরা চমকিত হয়েছেন তাই নয়, সামাজিক মাধ্যমেও বিষয়টি ভাইরাল হয়ে গেছে। পক্ষে-বিপক্ষে রায় দিয়েছেন নেটিজেনরা। মজা করে পোস্টও বিস্তর করা হয়েছে। সবমিলিয়ে রীতিমতো আলোড়ন ফেলে দিয়েছে দুই বাঁদর।

বনদপ্তরের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, দুই বাঁদরকে কিছুদিনের মধ্যে নাগপুরের কাছের একটি জঙ্গলে ছেড়ে দেয়া হবে। সূত্র: ডয়েচে ভেলে

বৈশাখী নিউজ/ জেপা