সৌদির বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করবে ইরান

সৌদি আরবের অসহযোগিতার কারণে ইয়েমেনে নিযুক্ত ইরানের রাষ্ট্রদূত হাসান ইরলুকে সময়মতো সানা থেকে তেহরানে আনা যায়নি বলে দাবি করেছে ইরান।

দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির-আব্দুল্লাহিয়ান বলেছেন, সৌদি আরবের অসহযোগিতার কারণে তার করোনা চিকিৎসায় দেরি হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে তেহরান আন্তর্জাতিক আইন অনুযায়ী আনুষ্ঠানিক অভিযোগ দায়ের করবে বলেও জানান তিনি।

ইরানের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা জানিয়েছে, হাসান ইরলু মঙ্গলবার তেহরানের একটি হাসপাতালে করোনা চিকিৎসা গ্রহণ করা অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। ইয়েমেনের ওপর সৌদি আরবের অবরোধের কারণে ইরানি রাষ্ট্রদূতকে সানা থেকে তেহরানে আনতে দেরি হয় বলে খবরে বলা হয়।

হাসান ইরলুর জানাজা শেষে ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, রাষ্ট্রদূতকে তেহরানে ফিরিয়ে আনার বেশ কয়েকদিন আগে থেকে ইরান তৃতীয় একটি দেশের মাধ্যমে সৌদি আরবকে বারবার এই বার্তা দিচ্ছিল যে, হাসান ইরলুকে উন্নত চিকিৎসার জন্য তেহরানে ফিরিয়ে আনা প্রয়োজন।

এজন্য তেহরান থেকে বা তৃতীয় কোনো দেশ থেকে সানায় বিমান পাঠানোর অনুমতি চাইলেও রিয়াদের পক্ষ থেকে সে অনুমতি দেওয়া হয়নি।

আব্দুল্লাহিয়ান বলেন, শেষ পর্যন্ত সৌদি আরবেরই কোনো কোনো কর্মকর্তার হস্তক্ষেপে শেষ মুহূর্তে সানায় বিমান পাঠানো সম্ভব হয়। কিন্তু ততদিনে অনেক দেরি হয়ে যায়।

বৈশাখী নিউজ/ জেপা