রাশিয়ার সীমান্তে ন্যাটো সেনাদের উপস্থিতি গ্রহণযোগ্য নয়

রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ বলেছেন, তার দেশের সীমান্তে মার্কিন নেতৃত্বাধীন ন্যাটো বাহিনীর উপস্থিতি কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। সূত্র: এপি

ইউক্রেন ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্র ও তার ন্যাটো মিত্রদের সঙ্গে যখন রাশিয়ার আলোচনা অচলাবস্থায় পড়েছে এবং পশ্চিমা শক্তির পক্ষ থেকে বারবার যুদ্ধের আশঙ্কার কথা বলা হচ্ছে তখন সের্গেই ল্যাভরভ সংবাদ সম্মেলনে এই বক্তব্য দিলেন।

শুক্রবার মস্কোয় অনুষ্ঠিত এ সংবাদ সম্মেলনে ইরানের প্রেসিডেন্টের আসন্ন রাশিয়া সফর, পারস্য উপসাগরীয় অঞ্চলের নিরাপত্তা এবং কাজাখস্তানে সামরিক বাহিনীর শান্তিরক্ষা মিশনের ইস্যু নিয়েও কথা বলেন ল্যাভরভ।

তিনি বলেন, “ইউক্রেন সীমান্তে ন্যাটো বাহিনীর সেনা এবং অস্ত্র মোতায়েন রাশিয়ার জন্য রেডলাইন।”

ইউক্রেন ইস্যুতে চলতি সপ্তাহে রাশিয়া এবং যুক্তরাষ্ট্র ও তার ন্যাটো মিত্র দেশগুলোর মধ্যে কয়েক দফা বৈঠক হলেও তেমন কোনো অগ্রগতি হয়নি।

মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জেইক সুলিভান বলেছেন, “ইউক্রেনে রাশিয়ার সামরিক আগ্রাসনের ঝুঁকি অনেক বেশি। এছাড়া, অর্গানিজেশন ফর সিকিউরিটি অ্যান্ড কোঅপারেশন ইন ইউরোপ বা ওএসসিই-তে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত মাইকেল কার্পেন্টার বলেছেন, ‘ইউক্রেন নিয়ে যুদ্ধের দামামা বাজার শব্দ শোনা যাচ্ছে।”

অন্যদিকে, ওএসসিই-তে নিযুক্ত রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত বলেছেন, ‘রাশিয়ার প্রতি যুক্তরাষ্ট্র ও ন্যাটো জোটের আগ্রাসী আচরণ অব্যাহত থাকলে কৌশলগত ভারসাম্য নিশ্চিত করার জন্য মস্কো প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হবে।’

বৈশাখী নিউজ/ এপি