প্রস্তাব গ্রহণ, টুইটারের মালিক হচ্ছেন ইলন মাস্ক

শেষপর্যন্ত ইলন মাস্কের প্রস্তাবই গ্রহণ করতে চলেছে টুইটার। শেয়ারপিছু ৫৪.২ ডলারের বিনিময়ে মার্কিন ধনকুবেরের কাছেই সব শেয়ার বিক্রি করে দিতে যাচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মটি।

সূত্রের উদ্ধৃতি দিয়ে এমনটাই জানিয়েছে সংবাদসংস্থা রয়টার্স। সংবাদসংস্থাটির প্রতিবেদনে অনুযায়ী, নগদ ৪৩ বিলিয়ন ডলারের প্রস্তাবে রাজি হয়ে গিয়েছে টুইটার।

কয়েকদিন আগেই প্রায় ২২ হাজার কোটি টাকার বিনিময়ে মাইক্রোব্লগিং সাইট টুইটারের ৯.২ শতাংশ মালিকানা কিনে নিয়েছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের ধনকুবের ইলন মাস্ক। তার পরেই ২১ এপ্রিল টুইটার কিনতে শেয়ার পিছু ৫৪.২০ মার্কিন ডলার দেয়ার প্রস্তাব দেন তিনি। সেই হিসাবে গোটা সংস্থাটির মোট বাজারদর দাঁড়ায় ৪১০০ কোটি মার্কিন ডলার।

আদৌ কি টুইটার মাস্কের এই প্রস্তাব মেনে নেবে! বেশ কিছুদিন ধরেই এ নিয়েই নেটমাধ্যেমে চলছিল জোর জল্পনা। সংবাদ সংস্থার খবর, মাস্কের প্রস্তাব মেনে নিয়েছে টুইটার। শেয়ার কেনার জন্য পুরো টাকাটাই মাস্ক নগদে দেবেন, জানা গেছে এমনটাও।

তবে এখনও মাস্ক কিংবা টুইটারের পক্ষ থেকে সে বিষয়ে কোনও অফিসিয়াল বিবৃতি দেয়া হয়নি। সবকিছু চূড়ান্ত হলে ২৫ এপ্রিল গভীর রাতে বা ২৬ এপ্রিলের সকালেই সেই ঘোষণা আসতে বলেই মনে করা হচ্ছে।

ইলন মাস্ক আগেই জানিয়েছিলেন, তার প্রস্তাব গৃহীত না হলে তিনি নিজের অংশীদারিত্ব আর রাখবেন কি না তা-ও পুনর্বিবেচনা করতে বাধ্য হবেন।

মাস্কের দাবি, তিনি টুইটারের অংশীদার হওয়ার সময় ভেবেছিলেন, টুইটার বিশ্বজুড়ে বাক স্বাধীনতার মূল মাধ্যম হয়ে উঠবে। কিন্তু বিনিয়োগ করার পরই নাকি তিনি উপলব্ধি করেন যে, বর্তমান অবস্থায় তা কখনই সম্ভব নয় টুইটারের পক্ষে। তাই ব্যক্তিগত মালিকানাধীন সংস্থা হিসেবে এর পরিবর্তন ঘটানোই তার লক্ষ্য।

সূত্র- রয়টার্স ও হিন্দুস্তান টাইমস।

বৈশাখী নিউজ/ জেপা