বিভাগে নিউরোসার্জন বৃদ্ধির উদ্যোগ নিতে বললেন বিএসএমএমইউ উপাচার্য

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ( বিএসএমএমইউ) উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মোঃ শারফুদ্দিন আহমেদ বলেছেন, মানুষের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে প্রতি লাখে ১ জন করে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক প্রয়োজন। আমাদের সেসংখ্যক বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক তৈরি করতে হবে। সেজন্য সংশ্লিষ্ট বিভাগগুলোকে উদ্যোগ নিতে হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ে নিরোসার্জনদের সংখ্যা বৃদ্ধির জন্য বিভাগ উদ্যোগ নিলে আমার প্রশাসন তা বাস্তবায়ন করবে।

আজ বুধবার সন্ধ্যায় (২৭ এপ্রিল ২০২২) বিশ্ববিদ্যালয়ের নিউরোসার্জারি বিভাগের মিলনায়নে ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

অধ্যাপক ডা. মোঃ শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন, এক সময় নিউরোসার্জন হিসেবে আমরা মাত্র একজন অধ্যাপক ডা. রশিদ উদ্দিন স্যারের নাম শুনতে পেতাম। এখন দেশে ২০০ জন নিউরোসার্জন রয়েছে। দেশে কিভাবে ৪০০ জন নিউরোসার্জন তৈরি করা যায় সেভাবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় নিউরোসার্জরি বিভাগ উদ্যোগ নিলে বর্তমান প্রশাসন তা বাস্তবায়ন করবে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ৮টি বিভাগে ক্যান্সার, ডায়ালাইসিস, হৃদরোগ সেন্টার স্থাপন করার উদ্যোগ নিয়েছেন। আমরা চাই নিউরোসার্জারি সেন্টারও সে তালিকায় যুক্ত হোক। তবে নিউরোসার্জন সংখ্যা বাড়াতে হবে।

অধ্যাপক ডা. মোঃ শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন, প্রতি লাখে সাধারণত ১ জন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক লাগে।বিশেষ বিভাগে প্রতি দশ লাখে ১জন বিশেষজ্ঞ প্রয়োজন। সেসংখ্যক বিশেষজ্ঞ বাড়াতে হলে বিএসএমএমইউ’র নিউরোসার্জারি বিভাগের মত বিষয়ে ৮ জন শিক্ষার্থী পর্যায়ক্রমে ১২, আবার ১৬ তে উন্নীত করতে হবে।

ইফতার ও দোয়া মাহফিলের অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ- উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. ছয়েফ উদ্দিন আহমেদ, উপ-উপাচার্য (গবেষণা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. মোঃ জাহিদ হোসেন, সার্জারি অনুষদের ডিন অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ হোসেন, নিউরোসার্জারি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. আখলাক হোসেন খান, সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. এম আফজাল হোসেন প্রমুখ।

এদিকে বিএসএমএমইউ উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মোঃ শারফুদ্দিন আহমেদ বিকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণি কর্মচারী ইউনিয়ন ও শিশু সার্জারি বিভাগের ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।