আজ ভোলার চার ইউপিতে নির্বাচন

ভোলার দৌলতখান উপজেলার হাজীপুর ও সৈয়দপুর ইউনিয়ন এবং লালমোহন উপজেলার রমাগঞ্জ ও কালমা ইউনিয়ন, এই চার ইউনিয়নে বুধবার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। চার ইউনিয়ন পরিষদে (ইউপি) মোট ২০৫জন প্রার্থী ভোট যুদ্ধে অংশগ্রহণ করছেন। এদের মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ২১জন, নারী সদস্য পদে ৪৪ জন ও সাধারণ সদস্য পদে ১৪০জন। এ চারটি ইউনিয়নেই ইলেকট্রনিক্স ভোটিং মেশিন (ইভিএম) মাধ্যমে ভোট গ্রহণ করা হবে। নির্বাচনকে ঘিরে ইতোমধ্যে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে নির্বাচন কমিশন। মঙ্গলবার (১৪জুন) বিকেলেই প্রতিটি কেন্দ্রে কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে নির্বাচনী সরঞ্জাম। সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে নির্বাচন অনুষ্ঠানের লক্ষে পুলিশ র‍্যাব, কোস্টগার্ড ও আনসার সদস্যদের সমন্বয়ে চার স্তরের নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে চার ইউপিতে।

লালমোহন উপজেলার কালমা ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৫ জন, সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১৪ জন ও সাধারণ সদস্য পদে ৪৭ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ইউনিয়নটিতে মোট ভোটার সংখ্যা ২৮ হাজার ৭১৫ জন।

একই উপজেলার রমাগঞ্জ ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে ৫ জন, সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ৮ জন ও সাধারণ সদস্য পদে ৩৮ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ইউনিয়নে মোট ভোটার সংখ্যা ১৮ হাজার ৮৬১ জন।

অপরদিকে দৌলতখান উপজেলার সৈয়দপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৯ জন, সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১২ জন ও সাধারণ সদস্য পদে ৩৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ইউনিয়নটিতে মোট ভোটার সংখ্যা ২২ হাজার ৪০৬ জন।

একই উপজেলার হাজীপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ২ জন, সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১০জন ও সাধারণ সদস্য পদে ২১ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ইউনিয়নটিতে মোট ভোটার সংখ্যা ৩ হাজার ৪৩৩ ভোট।

লালমোহন ও দৌলতখান উপজেলার নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা আমীর খসরু গাজী এবং আব্দুস সালাম জানান, শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহনের লক্ষে সকল ধরণের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। চারটি ইউনিয়নেই ইভিএমে ভোট গ্রহণ করা হবে। ইতোমধ্যে সকল কেন্দ্রে নির্বাচনী সরঞ্জাম পাঠানো হয়েছে। একটি অবাদ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে প্রতিটি কেন্দ্রে বিপুল সংখ্যক আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী মোতায়ন করা হয়েছে। প্রতিটি ইউনিয়নে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োজিত থাকবে। আমরা আশা করছি জনগনকে একটি অবাধ ও সুন্দর নির্বাচন উপহার দিতে পারব।

বৈশাখী নিউজ/ ফাজা