তীব্র গরমে স্পেনে ভয়াবহ দাবানল

তীব্র গরমে ভয়াবহ দাবানলের সৃষ্টি হয়েছে স্পেনের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চল। এ পর্যন্ত ২০ হাজার হেক্টরের বেশি জমি পুড়ে গেছে বলে জানিয়েছে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ, সামনে যা আরও বাড়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে।

দেশটির উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের অনেক এলাকায় দাউ দাউ করে আগুন জ্বলছে। পুড়ে যাচ্ছে সেখানকার হেক্টরের পর হেক্টর জমি। গ্রীষ্মকাল শুরুর আগেই সৃষ্ট ভয়াবহ দাবদাহের কারণে বেশ কয়েকদিন ধরে দাবানল সৃষ্টি হয়েছে। এ দাবানলে এখন পর্যন্ত পুড়ে ছাই ২০ হাজার হেক্টরেরও বেশি বনাঞ্চল। এরই মধ্যে দুর্ঘটনা এড়াতে দাবানল কবলিত এলাকা থেকে স্থানীয়দের সরে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছে অঞ্চলটির কর্তৃপক্ষ।

এদিকে শুষ্ক আবহাওয়া ও দমকা বাতাসের কারণে আগুন নিয়ন্ত্রণে হেলিকপ্টার ব্যবহার করলেও হিমশিম খাচ্ছে দমকলকর্মীরা। আগুন নেভাতে সেনাবাহিনীও কাজ শুরু করেছে। এ অবস্থায় একমাত্র বৃষ্টিকেই আগুন নেভাতে শেষ ভরসা বলে মনে করছেন অনেকে।

গ্রীষ্মকাল শুরুর পূর্বেই স্পেনের তাপমাত্রা সর্বোচ্চ ৪৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছাড়িয়েছে। চলমান এ পরিস্থিতিতে মাদ্রিদের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে ডু ফোম থিম পার্কটির কাছাকাছি আগুন চলে আসায় দুর্ঘটনা এড়াতে পার্ক খালি করেছে কর্তৃপক্ষ।

এর আগে গেল ৮ জুন রাতে হঠাৎ আন্দালুসিয়া উপকূলের পর্যটন স্পট কস্তা ডেল সোলের ঠিক ওপরে অবস্থিত সিয়েরা বারমেজার পুজেরা পাহাড়ের ঢালে আগুনের সূত্রপাত হয়। কর্তৃপক্ষ জানায়, এ সময় বাতাসের গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ৪০ কিলোমিটার। মুহূর্তেই আগুন ছড়িয়ে পড়ে কয়েক কিলোমিটার এলাকাজুড়ে।

তবে প্রচণ্ড বাতাস আর তাপের কারণে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে বেগ পেতে হয় দমকলকর্মীদের। দ্রুত কয়েক হাজার বাসিন্দাকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেয় প্রশাসন। ভয়াবহ এ দাবানলে দমকলকর্মীর কয়েক সদস্য আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। সূত্র: রয়টার্স

বৈশাখী নিউজ/ জেপা