গত ছয় মাসে আমাজনে পাঁচটি নিউইয়র্কের সমান বন উজাড়

চলতি বছরের প্রথম ছয় মাসে আমাজন বন থেকে রেকর্ড পরিমাণ বন উজাড় করা হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক শহরের যতটা তার পাঁচগুণ সমান বন কেটে ফেলা হয়েছে এই ছয় মাসে। ব্রাজিলের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা (আইএনপিই) এমনটাই জানাচ্ছে।

স্যাটেলাইট থেকে তোলা ছবি বিশ্লেষণ করে আইএনপিআই জানিয়েছে, চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে জুন পর্যন্ত আমাজনের তিন হাজার ৯৮৮ বর্গকিলোমিটার এলাকার বন উজাড় হয়েছে। আয়তনের দিক থেকে যা নিউইয়র্কের পাঁচ গুণের সমান। যা আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় ১০ দশমিক ৬ শতাংশ বেশি। গত বছরের প্রথম ছয় মাসে আমাজনের তিন হাজার ৮৮ বর্গকিলোমিটার এলাকার বনভূমি উজাড় হয়েছিল।

২০১৫ সাল থেকে আমাজনে বনভূমি উজাড়ের তথ্য নিয়মিত সংগ্রহ ও বিশ্লেষণ করছে আইএনপিআই। প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে, এর পর থেকে আমাজনে এবারই সবচেয়ে বেশি বন উজাড় হয়েছে। এরমধ্যে শুধু এই জুনেই বনটির এক হাজার ১২০ বর্গকিলোমিটার এলাকা উজাড় হয়েছে, যা চলতি বছরে একক মাস হিসেবে সবচেয়ে বেশি।

বিশ্বের সবচেয়ে বড় রেইনফরেস্ট আমাজন। এখানে প্রায় ৩০ লাখ প্রজাতির উদ্ভিদ ও পশুপাখি রয়েছে; পাশাপাশি ১০ লাখ আদিবাসীর বসতি। কার্বনডাইঅক্সাইড শোষণ করে বৈশ্বিক উষ্ণতা কমাতেও বড় ভূমিকা রাখছে বনাঞ্চলটি।

জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে বৈশ্বিক উষ্ণায়ন বেড়ে যাওয়া নিয়ে বিশ্বজুড়ে উদ্বেগ রয়েছে। এরমধ্যেই আমাজনে বন উজাড়ের ঘটনা আতঙ্ক বাড়িয়েছে। এতে বৈশ্বিক উষ্ণায়ন বেড়ে যাওয়ার হার ত্বরান্বিত হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

গত ছয় মাসে আমাজনে রেকর্ড সংখ্যক গাছ কাটা হয়েছে। বিশ্বের বৃহত্তম রেইনফরেস্ট এখন চরম হুমকির মুখে। আমাজনের ব্রাজিলীয় অংশে, বছরের পর বছর ধরে বন উজাড় আশঙ্কাজনক হারে বেড়েছে।

আমাজনে নির্বিচারে বন উজাড় বৃদ্ধি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন বিশেষজ্ঞরা। পরিবেশবিদদের মতে, দেশটির প্রেসিডেন্ট জাইরে বলসোনারো বন উজাড়ের জন্য দায়ী। তিনি ক্ষমতায় আসার পর থেকে বৃক্ষ নিধনের পরিমাণ ব্যাপকভাবে বেড়েছে।

পৃথিবীর ফুসফুস আমাজনে বন উজাড়ের এ হার প্রকৃতির ভারসাম্য রক্ষার বিষয়ে নতুন করে উদ্বেগ বাড়িয়েছে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

বৈশাখী নিউজ/ বিসি