তীব্র তাপপ্রবাহে যুক্তরাজ্যে জরুরি অবস্থা

যুক্তরাজ্যজুড়ে বইছে তীব্র তাপদাহ। প্রচণ্ড গরমে তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছাড়িয়ে যাওয়ার শঙ্কা করা হচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে দেশটিতে ঘোষণা করা হয়েছে জাতীয় জরুরি অবস্থা।

সোমবার (১৮ জুলাই) ও মঙ্গলবার (১৯ জুলাই) লন্ডন, ম্যানচেস্টার ও ইয়র্ক এলাকার জন্য এ সতর্কতা জারি করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

জনজীবনের ঝুঁকি এড়াতে শুক্রবার (১৫ জুলাই) এ সিদ্ধান্ত নেয় ব্রিটিশ আবহাওয়া অফিস।

দেশটির আবহাওয়া অফিস সূত্রে জানা যায়, জীবনের ঝুঁকি এড়াতে দৈনন্দিন রুটিন পরিবর্তন করতে হবে। এমন পরিস্থিতিতে রেল চলাচলে গতি কমানো, স্কুলের সময়সীমা কমিয়ে আনা ও হাসপাতালগুলোতে বেশ কিছু এপয়েন্টমেন্ট বাতিল করা হয়েছে।

আবহাওয়ার অফিসের সতর্কবার্তার পর যুক্তরাজ্যের স্বাস্থ্যবিষয়ক নিরাপত্তা সংস্থাগুলো তাপপ্রবাহের চতুর্থ ধাপে সতর্কতা জারি করেছে। গরমে মানুষ অসুস্থ হওয়ার পাশাপাশি মৃত্যুও হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

যুক্তরাজ্যের ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিস (এনএইচএস) নেতারা শুক্রবার সন্ধ্যায় সতর্ক করে বলেন, অ্যাম্বুলেন্সের আরও বেশি চাহিদা থাকবে এবং গরম আবহাওয়ায় গুরুতর অসুস্থ রোগীরা ঝুঁকির মধ্যে পড়তে পারে। একটি চিঠিতে তারা বলেছে যে অ্যাম্বুলেন্সগুলো রোগীদের তোলার আগে ৩০ মিনিটের বেশি জরুরি বিভাগের বাইরে অপেক্ষা করা উচিত নয়।

আবহাওয়া অফিসের মুখপাত্র গ্রাহাম ম্যাজ বলেন, যুক্তরাজ্যে সর্বোচ্চ রেকর্ড করা তাপমাত্রা ছিলো ২০১৯ সালে কেমব্রিজে ৩৮ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড। এটি অত্যন্ত গুরুতর পরিস্থিতি, তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে পৌঁছানোর ৫০ ভাগ শঙ্কা রয়েছে।