বিএসএমএমইউতে ‘প্রফেসর সহিদুল্লা নিউবর্ন নোলেজ এন্ড রিসার্চ’ সেল উদ্বোধন

বিএসএমএমইউ’র নবজাতক বিভাগে প্রফেসর সহিদুল্লা নিউবর্ন নোলেজ এন্ড রিসার্চ সেল উদ্বোধন

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) নবজাতক বিভাগে ‘প্রফেসর সহিদুল্লা নিউবর্ন নোলেজ এন্ড রিসার্চ সেল’ উদ্বোধন ও ইয়ারবুক-২০২২ এর মোড়ক উম্মোচন করা হয়েছে।

আজ বুধবার দুপুর ১টায় (২০ জুলাই) বিশ্ববিদ্যালয়ের সি-ব্লকের নবজাতক বিভাগে প্রধান অতিথি হিসেবে উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মোঃ শারফুদ্দিন আহমেদ এ রিসার্চ সেল এবং ই -ব্লকে বিভাগটির ইয়ারবুক -২০২২ এর মোড়ক উম্মোচন করেন।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে সদ্য স্থাপিত ‘‘প্রফেসর সহিদুল্লা নিউবর্ন নোলেজ এন্ড রিসার্চ সেল” অনলাইনের মাধ্যমে দেশ বিদেশের বিভিন্ন মেডিক্যাল কলেজ, হাসপাতাল ও বিশ্ববিদ্যালয়ে কী কী কাজ হয় সেটি একসঙ্গে জানা যাবে। সারাদেশের নবজাতক রোগীদের এনআইসিইউ সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে কেন্দ্রীয়ভাবে এ রিসার্চ সেল সরাসরি কাজ করবে। দেশের বিভিন্ন মেডিক্যাল কলেজ, হাসপাতালে কর্মরত নবজাতকদের চিকিৎসকদের নবজাতক সেলের মাধ্যমে ঐক্যবদ্ধ করা হবে এবং তাদের আধুনিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্রীয়ভাবে দেয়া যাবে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মোঃ শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন, জ্ঞানের কোন সীমা নেই। শিক্ষা ছাড়া আমাদের কোন গতি নেই। যারা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক তারাও প্রতিদিনই শেখেন। রিসার্চ করতে গেলে অনেক শিখতে হয়, শেখা যায়। প্রফেসর সহিদুল্লা নিউবর্ন নোলেজ এন্ড রিসার্চ সেল দেশের নবজাতক চিকিৎসায় নতুন দিগন্তের উম্মোচন করবে বিশ্বাস করি।

উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মোঃ শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন, জনকল্যাণে অধিক কাজে লাগে এমন সব গবেষণা বেশী বেশী করতে হবে। গবেষণাকাজে নবজাতক বিভাগের এ নতুন সেল বিশ্ববিদ্যালয়কে অন্যান্য মেডিক্যাল শিক্ষা, গবেষণা ও স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠানকে একই ছাতার তলায় নিয়ে আসতে অগ্রণী ভূমিকা পালন করবে। নবজাতক বিভাগের মত সব বিভাগেও ইয়ারবুক চালু করা হবে বলে জানান তিনি।

উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মোঃ শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন, যে কোন গবেষণা বা কাজ হোক সেটি করলেই কিছু ভুল ত্রুটি হতে পারে। ভুল হতে হতে একসময় সঠিক হবে। ভুল হবে ভেবে কাজ করব না এটি হতে পারে না। কাজ করতে গেলেই ভুল হবে। এ ভুল থেকে আমরা নতুন করে শিক্ষা লাভ করি।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (গবেষণা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. মোঃ জাহিদ হোসেন, উপ-উপাচার্য (একাডেমিক) অধ্যাপক ডা. একেএম মোশাররফ হোসেন, উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. ছয়েফ উদ্দিন আহমদ, নবজাতক বিভাগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ সহিদুল্লা, বর্তমান চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. সঞ্জয়কুমার দে, পরিচালক ব্রি: জেনারেল ডা. নজরুল ইসলাম খান প্রমুখ।

এ সময় শিশু নেফ্রোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. আফরোজা বেগম, শিশু হেমাটোলজি ও অনকোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. এটিএম আতিকুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের নবজাতক বিভাগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ সহিদুল্লা। তিনি দেশে ও বিদেশের নবজাতক চিকিৎসায় অন্যন্য ভূমিকা রেখেছেন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় নবজাতকের চিকিৎসায় অবদানের স্বরূপ তাঁর নামে এ রিসার্চ সেল প্রতিষ্ঠা করা হল।