এমপি আনার হত্যা: ৮ দিনের রিমান্ডে সাইদুল করিম মিন্টু

আপডেট: June 13, 2024 |

ভারতের কলকাতায় ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম আনারকে হত্যা মামলায় সাইদুল করিম মিন্টুর ৮ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) ঢাকার অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট তোফাজ্জল হোসেন এ রিমান্ড আদেশ দেন। সাইদুল করিম মিন্টু ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

এর আগে সকালে মিন্টুকে গ্রেপ্তার দেখায় ডিবি পুলিশ। পরে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করে মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য তাকে ১০ দিনের রিমান্ডে নিতে আবেদন করেন ডিবি পুলিশের সিনিয়র সহকারী কমিশনার মাহফুজুর রহমান।

এরও আগে গত মঙ্গলবার (১১ জুন) বিকেলে ধানমন্ডি থেকে তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে ডিবি পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম আনার হত্যাকাণ্ডের বিষয়টি প্রকাশ্যে আসার আগেই ঝিনাইদহ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইদুল করিম মিন্টু এ খবর জানতেন বলে প্রমাণ পেয়েছেন তদন্তকারীরা। গত ১৬ মে মিন্টু এমপি আনার হত্যার বিষয়টি জানতে পেরেছিলেন, এমনকি ছবিও পেয়েছিলেন। কিন্তু বিষয়টি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বা নিহতের পরিবারকে তিনি জানাননি।

পরে ঝিনাইদহ আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক কাজী কামাল আহমেদ বাবুকে জিজ্ঞাসাবাদ এবং তার মোবাইল ফোনের রেকর্ড বিশ্লেষণ করে গোয়েন্দারা এসব তথ্য পান।

এমনকি সাত দিনের রিমান্ডে থাকা বাবু ঢাকা মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা শাখাকে বলেছেন, তিনি তার ফোন মিন্টুকে দিয়েছিলেন এবং হত্যার তথ্য তার সঙ্গে শেয়ার করেছেন। হত্যাকাণ্ডের সমন্বয়ক আমানুল্লাহ ওরফে শিমুল ভূঁইয়ার সঙ্গে ফোনে বাবুর যোগাযোগ হয়।

আমানুল্লাহ ও বাবু পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছিলেন, তারা হোয়াটসঅ্যাপে হত্যার ছবি বিনিময় করেছিলেন এবং ভাঙ্গা এক্সপ্রেসওয়ের পাশে দেখা করেছিলেন।

প্রসঙ্গত, গত ১২ মে চিকিৎসার জন্য ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ থেকে চুয়াডাঙ্গার দর্শনার গেদে সীমান্ত দিয়ে ভারতে যান ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম আনার। তিনি পশ্চিমবঙ্গে বরাহনগর থানার মণ্ডলপাড়া লেনে গোপাল বিশ্বাস নামে এক বন্ধুর বাড়িতে ওঠেন।

পরদিন ডাক্তার দেখানোর কথা বলে ওই বাড়ি থেকে বের হন। এরপর থেকেই রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ আনোয়ারুল আজীম। বাড়ি থেকে বেরোনোর পাঁচদিন পরে গত ১৮ মে বরাহনগর থানায় আনোয়ারুল আজীম নিখোঁজের বিষয়ে একটি জিডি করেন বন্ধু গোপাল বিশ্বাস।

এরপরও খোঁজ মিলেনি তিনবারের এই সংসদ সদস্যের। পরে বুধবার (২২ মে) হঠাৎ খবর ছড়ায়, কলকাতার পার্শ্ববর্তী নিউটাউন এলাকায় বহুতল সঞ্জীবা গার্ডেনস নামে একটি আবাসিক ভবনের বিইউ ৫৬ নম্বর রুমে আনোয়ারুল আজীম আনার খুন হয়েছেন।

Share Now

এই বিভাগের আরও খবর