‘আমি খারাপ লোক নই’, কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েডের বাঁচার আকুতির ভিডিও প্রকাশ

যুক্তরাষ্ট্রে পুলিশ হেফাজতে মারা যাওয়া কৃষ্ণাঙ্গ যুবক হত্যাকাণ্ডের নতুন একটি ভিডিও সামনে এসেছে। স্থানীয় সময় বুধবার (৩১ মার্চ) তৃতীয় দিনের মতো আদালতে অভিযুক্ত পুলিশ কর্মকর্তা ডেরেক চৌভিনের বিচারকার্য পরিচালনার সময় এই ভিডিওটি প্রদর্শন করেন বিচারক। এ খবর প্রকাশ করেছে বিবিসি।

সেখানে দেখা যায়, আটকের পর জর্জ ফ্লয়েড পুলিশ অফিসারদের কাছে অনুনয় করে বলছেন ‘আমি খারাপ লোক নই, আমার কোনো ক্ষতি করবেন না’।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত থাকা পুলিশ কর্মকর্তা টমাস লেন, জে আলেকজান্ডার কুয়েং এবং টু থাওয়ের বডি ক্যামেরায় ধারণ করা এই ভিডিও ফুটেজে আরো দেখা যায়, জর্জ ফ্লয়েড পুলিশের মুখোমুখি হচ্ছেন। এরপর প্রাণ ভিক্ষা চেয়ে বলেন, ‘দয়া করে আমাকে গুলি করবেন না। কয়েকদিন আগেই আমি আমার মা’কে হারিয়েছি’।

হাতকড়া বাধা অবস্থাতেই তিনি টমাস লেন এবং জে আলেকজান্ডার কুয়েংকে বলছিলেন, আমাকে মারবেন না। বিনিময়ে আপনারা যা বলবেন তাই করতে রাজি আছি। এমন অবস্থার মধ্যেই ফ্লয়েডকে জোর করে গাড়িতে তুলতে যায় এই দুই পুলিশ কর্মকর্তা। তখন কান্না করে দেন কৃষ্ণাঙ্গ যুবকটি।

ঠিক ওই সময় ঘটনাস্থলে পৌঁছান টু থাওয়ে এবং ডেরেক চৌভিন। পুলিশ অফিসাররা তাকে গাড়ি থেকে টেনে নামান এবং মাটিতে শুইয়ে দেন। এমন মুহূর্তে জর্জ ফ্লয়েডকে বলতে শোনা যায়, তিনি তার মা এবং পরিবারের সদস্যদের উদ্দেশে বলছেন ‘সে তাদেরকে ভালোবাসে’। ভিডিওতে এটাও দেখা যায় যে, ফ্লয়েডের গলায় পুলিশ অফিসার ডেরেক চৌভিন টানা ৯ মিনিটের মতো চেপে ধরে রয়েছেন। এরপর তার নিঃশ্বাস পরীক্ষা করা হয়।

অবশ্য খুন ও হত্যার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ৪৫ বছর বয়সী পুলিশ অফিসার ডেরেক চৌভিন। তার আইনজীবী ইঙ্গিত দেন যে, ফ্লয়েড অতিরিক্ত মাত্রায় এবং খারাপ স্বাস্থ্যের কারণে মারা গিয়েছেন।

বৈশাখী নিউজজেপা