যুক্তরাষ্ট্রে আত্মহত্যার প্ররোচনা দেওয়ায় এক তরুণী দোষী সাব্যস্ত

যুক্তরাষ্ট্রের বোস্টনের একজন কলেজ শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছেন। এ ঘটনায় তাঁর প্রেমিকাকে দোষী সাব্যস্ত করে রায় দিয়েছেন বিচারক। জানা গেছে, কয়েক হাজার বার্তা প্রেমিককে পাঠিয়েছিলেন ওই তরুণী। তাঁর মধ্যে বহু বার্তায় প্রেমিককে আত্মহত্যা করার কথা বলেছেন তিনি। সে জন্যই তিনি দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন।

জানা গেছে, দোষী সাব্যস্ত ইনয়ং ইউ আড়াই বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত হয়েছেন। এরপর ১০ বছর তাঁকে থাকতে হবে সংশোধনাগারে। তবে যদি তিনি সব পরীক্ষার শর্তাবলি মেনে চলতে পারেন, সে ক্ষেত্রে সংশোধনাগারে থাকার মেয়াদ এড়াতে পারবেন। তার মধ্যে রয়েছে মানসিক স্বাস্থ্য ঠিক রাখা এবং দাতব্য কাজে যুক্ত থাকা।

বাদীপক্ষের আইনজীবী বলছেন, আত্মহত্যা করা ওই তরুণকে দুই মাসে হাজার হাজার বার্তা পাঠিয়ে আত্মহত্যা করতে বলেছেন দোষী সাব্যস্ত তরুণী।

একপর্যায়ে ২০১৯ সালের মে মাসে বোস্টনে আত্মহত্যা করেন উরতুলা। দেড় বছরের সম্পর্ক তিক্ত পর্যায়ে গেলে প্রেমিকার প্ররোচনায় তিনি আত্মহত্যা করেছেন। এমনকি ওই তরুণ আত্মহত্যা করার কিছুক্ষণ আগেও প্রেমিকার কাছ থেকে নেতিবাচক বার্তা পেয়েছেন।

এই রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছে মৃতের পরিবার। এক বিবৃতিতে পরিবারটির সদস্যরা জানান, এবার তাঁরা সন্তানের শেষকৃত্য করবেন। তবে তরুণীর ব্যাপারে তাঁদের কোনো অনুভূতি না থাকার কথাও জানিয়েছেন।

তবে ২০১৯ সালে তরুণীর দাবি ছিল, প্রেমিককে আত্মহত্যা না করার কথা বলতে বলতে তিনি ক্লান্ত হয়ে পড়েছিলেন। এমনকি প্রেমিকের ভাইকেও এ ব্যাপারে জানিয়ে সতর্ক করেছিলেন। কিন্তু এত দিনে এসে বিষয়টি উল্টো প্রমাণিত হলো।
সূত্র : আইরিশ এক্সামিনার

বৈশাখী নিউজ/ ইডি