বাসে অর্ধেক যাত্রী পরিবহনের বিষয়ে বৈঠক আজ

Boishakhinews24.Net

দেশে করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রন ঠেকাতে বিধিনিষেধ আরোপ করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। প্রজ্ঞাপনে ট্রেন, বাস ও লঞ্চে সক্ষমতার অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলাচল করতে পারবে মর্মে নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে।

এরই মধ্যে ট্রেনে ভাড়া না বাড়িয়ে অর্ধেক যাত্রী পরিবহনের সিদ্ধান্ত হয়েছে। তবে বাস এবং লঞ্চে যাত্রী পরিবহনে কেমন ভাড়া নেয়া হবে তার সিদ্ধান্ত হয়নি।

আজ বুধবার দুপুরে বিআরটিএতে বাসে অর্ধেক যাত্রী পরিবহনের বিষয়ে বৈঠক হবে। বৈঠক শেষে সব শর্ত উল্লেখ করে নির্দেশনা জারি হতে পারে বলে জানা গেছে। এতে বাস মালিক সংগঠনের নেতারা অংশ নেবেন। অর্ধেক যাত্রী পরিবহনের বিপরীতে বাসের ভাড়া বাড়ানোর প্রস্তাব দিতে পারেন বাস মালিকরা।

বৈঠকে ভাড়া বাড়ানোর বিষয়টি তোলা হবে বলে জানান বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক হোসেন মো. মজুমদার। তিনি বলেন, বাসের ভাড়া বাড়ানোর বিষয়ে আলোচনা হবে। ভাড়া না বাড়লে বাস চালানো অসম্ভব।

এদিকে, ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার এনায়েত উল্যাহ বলেন, ‘সরকার যে সিদ্ধান্ত দেবে, আমরা সেটা মেনে নেব। বৈঠকে কী আলোচনা হবে, তা বৈঠকের পর জানানো হবে। ’

১১ দফার প্রজ্ঞাপনের ৬ নম্বরে বলা হয়েছে, ‘ট্রেন, বাস ও লঞ্চে সক্ষমতার অর্ধেক যাত্রী নেওয়া যাবে। সব ধরনের যানের চালক ও সহকারীদের কভিড-১৯ টিকার সনদধারী হতে হবে। ’

প্রসঙ্গত, করোনার সংক্রমণ রোধে গত সোমবার স্বাস্থ্যবিধিসংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করে সরকার। প্রজ্ঞাপনে গণপরিবহনের ভাড়া বাড়ানোর বিষয়ে কোনো কিছু বলা হয়নি। অর্ধেক যাত্রী পরিবহন করে কখনো ট্রেনের ভাড়া না বাড়লেও প্রতিবারই বেড়েছে বাসের ভাড়া।

অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের বিষয়টি সরকারি প্রজ্ঞাপন ও বিআরটিএর নির্দেশনায় উল্লেখ ছিল। কিছুদিন আগে পরিবহন ভাড়া বৃদ্ধি করা হয়েছে। তাই এবার বাসের ভাড়া বাড়িয়ে নির্দেশনা জারি করা হবে কি না, সে প্রশ্ন রয়ে গেছে।

বৈশাখী নিউজ/ জেপা