সুদানের দুই গোত্রের সংঘাত, নিহত ১৬৮

সুদানের দারফুর অঞ্চলে গোত্রীয় সংঘাতে অন্তত ১৬৮ জন নিহত হয়েছে। এ সংঘর্ষে আহত হয়েছে আরও ১০০ জন। এছাড়া সংঘাতের কারণে প্রায় ২০ হাজার মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছে।

গত শুক্রবার সুদানের পশ্চিমাঞ্চলীয় দারফুরের ক্রেইনিক এলাকায় প্রতিদ্বন্দ্বী দুই গোত্রের মধ্যে ভয়ানক সংঘাত শুরু হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছে একটি ত্রাণ সহায়তা সংস্থা। ভয়াবহ এ হামলার জন্য স্থানীয় সশস্ত্র জানজাবিদ গোষ্ঠীকে দায়ী করা হচ্ছে।

এই অঞ্চলে ত্রাণ সহায়তা নিয়ে কাজ করে এমন একটি বেসরকারি সংস্থা (এনজিও) দ্য জেনারেল কো-অর্ডিনেশন ফর রিফিউজিস অ্যান্ড ডিসপ্লেসড ইন দারফুর’র মুখপাত্র আদম রিগ্যাল জানান, সংঘর্ষে রোববারই ১৬০ জন নিহত হয়। সংঘর্ষ এখনও চলছে। ফলে হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছেন এই এনজিও কর্মকর্তা।

সংঘর্ষের কারণ বর্ণনা করে সংস্থাটি বলেছে, সম্প্রতি ক্রেইনিক এলাকার সশস্ত্র একটি গোত্রের দুই ব্যক্তিকে হত্যা করে অনারব মাসালিত সংখ্যালঘু গোষ্ঠী। তারই প্রতিশোধ নিতে শুক্রবার মাসালিত গোষ্ঠীর গ্রামে হামলা করে ওই সশস্ত্র গোত্রটি। ওইদিন নিহত হয় ৮ জন। সংঘর্ষের পর গত চারদিনে অন্তত ২০ হাজার মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছে।

পশ্চিম দারফুর প্রদেশের প্রাদেশিক রাজধানী গেনেইনা থেকে ৮০ কিলোমিটার দূরে ক্রেইনিক অঞ্চলের ভয়াবহ এ সংঘাতের কিছু ছবি ও ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। তাতে দেখা গেছে, গ্রামবাসীদের মাটি ও খড় দিয়ে তৈরি বাড়িগুলো দাউদাউ করে জ্বলছে। আর এর কাল ধোয়ার বিশাল কুণ্ডলি আকাশে উঠে যাচ্ছে।

এ সংঘাতের জন্য সরকারের মদদপুষ্ট স্থানীয় আরব জানজাবিদ সশস্ত্র গোষ্ঠীকে দায়ী করা হচ্ছে। বেসরকারি ত্রাণ সহায়তা সংস্থার অভিযোগ, গত কয়েক সপ্তাহ ধরেই একের পর এক হত্যাকাণ্ড, ঘর-বাড়ি জ্বালিয়ে দেওয়া ও গ্রামবাসীদের ওপর নির্যাতন চালিয়ে যাচ্ছে সশস্ত্র এ গোষ্ঠীটি।

বৈশাখী নিউজ/ ইডি